বোধ-বুদ্ধির বয়স থেকে সবাই শুনে এসেছি শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। সর্বশেষ জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০-এর মুখবন্ধে শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড বিষয়ে সংক্ষেপে নিখুঁত বর্ণনা আছে কয়েকটি বাক্যে

আবদুল্লাহ আল- মামুন ১৫ জানুয়ারি,২০২০ ৩২০ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

বোধ-বুদ্ধির বয়স থেকে সবাই শুনে এসেছি শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। সর্বশেষ জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০-এর মুখবন্ধে শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড বিষয়ে সংক্ষেপে নিখুঁত বর্ণনা আছে কয়েকটি বাক্যে। আমাদের দেশে ব্রিটিশ শাসনের সময় ১৮৫৪ সালে উডস এডুকেশনাল ডেসপাচের মাধ্যমে শিক্ষানীতি বা শিক্ষা কমিশনের যাত্রা শুরু। ১৮৮২, ১৯০১, ১৯২৭ সালে আরও তিনটি শিক্ষা কমিশন হয়েছিল। পাকিস্তানের স্বাধীনতার পর মওলানা আকরম খাঁ শিক্ষা কমিশন-১৯৪৯ দিয়ে শিক্ষা ব্যবস্থা পুনর্গঠনের চেষ্টা হয়। তারপর ১৯৫৭, ১৯৫৮, ১৯৬৪ ও ১৯৬৯ সালে পরপর আরও চারটি শিক্ষা কমিশন গঠিত হয়। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ার পর ড. কুদরত-ই-খুদার নেতৃত্বে বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে ১৯৭২ সালে একটি শিক্ষা কমিশন গঠিত হয়। এ পর্যন্ত কুদরত-ই-খুদা কমিশন রিপোর্টের ভিত্তির ওপর সমসাময়িক বাস্তবতা ধারণের চেষ্টা করা হয়েছে সব শিক্ষা কমিশনের নতুন রিপোর্টে।

পরবর্তীকালে আমরা পাই অধ্যাপক শামসুল হক ১৯৭৬, মজিদ খান ১৯৮৩, মফিজ উদ্দিন ১৯৮৭, শামসুল হক ১৯৯৭, এমএ বারী ২০০১, মনিরুজ্জামান মিঞা ২০০৩ এবং সর্বশেষ কবির চৌধুরীর নেতৃত্বে ২০০৯ সালের রিপোর্ট, বর্তমানে যা কার্যকর রয়েছে। এত এত রিপোর্টের পরেও কিন্তু বাংলাদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় মূলনীতি পাশ কাটানো চলছেই। অবিশেষজ্ঞের আরোপিত উপাদানের কারণে শিক্ষানীতির শতভাগ প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন কখনোই সম্ভব হয়নি।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোছাঃ মাহ্‌মুদা বেগম
২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০৯:০০ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।


মুহাম্মাদ আলীমুদ্দীন
২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০৮:৪২ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্ট দেখে রেটিং ও মতামত প্রদানের বিনীত অনুরোধ করছি।


মো:তাজুল ইসলাম ভূইয়া
২২ জানুয়ারি, ২০২০ ০৮:০৯ পূর্বাহ্ণ

শুভকামনা স্যারের জন্য।


করুনা কান্ত অধিকারী
২১ জানুয়ারি, ২০২০ ১২:০৯ অপরাহ্ণ

শুভকামনা । আমার কন্টেন্ট দেখে রেটিং সহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


অচিন্ত্য কুমার মন্ডল
২০ জানুয়ারি, ২০২০ ০৬:০৬ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল ।শ্রেনী উপযোগী ও মান সম্মত কন্টেন্ট তৈরি করার জন্য ধন্যবাদ। আমার এ সপ্তাহের কন্টেন্ট দেখার ও রেটিং সহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।https://www.teachers.gov.bd/content/details/519348


মো: ইব্রাহীম হোসেন
২০ জানুয়ারি, ২০২০ ০২:২৫ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন।


মো : নূরুদ্দিন
২০ জানুয়ারি, ২০২০ ১২:৩৯ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল।


মীর্জা মোঃ মাহফুজুল ইসলাম
১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ১২:৫০ অপরাহ্ণ

সুন্দর তথ্য প্রদান করার জন্য ধন্যবাদ


মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন
১৬ জানুয়ারি, ২০২০ ০৭:২২ পূর্বাহ্ণ

গুড