B T T ট্রেনিং, আইসিটির মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন প্রকল্প (২য় পর্যায়) প্রশিক্ষণ , স্থান: পাবনা সরকারী টিচার্স ট্রেনিং কলেজ।

মোহাঃ জহুরুল ইসলাম ১৭ মার্চ,২০২০ ১৯০ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ০.০০ ()

           আসসালামু আলাইকুমু ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু। আমি এখন পাবনা টি টি সি তে বার দিনের B T T ট্রেনিং এ আছি। আমার শিক্ষকতা জীবনের এটাই প্রথম আইসিটি ট্রেনিং। জানি না এই ট্রেনিং এর মাধ্যমে আমার শিক্ষকতা জীবনের কতটা পরিবর্তন আনতে সক্ষম হবো। তবে খুব খারাপ লাগছে এই ভেবে যে আর মাত্র তিনটা দিন এই জ্ঞানের মহাসাগর থেকে আমাদেরকে বিদায় নিয়ে চলে যেতে হবে। আমার মত একজন প্রত্যন্ত এলাকার শিক্ষককে এমন একটি ট্রেনিং সেন্টারে ট্রেনিং করার সুযোগ করে দেওয়ার জন্য আইসিটির মাধ্যমে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরে শিক্ষার প্রচলন প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর প্রতি ও পাবনা টিটিসির প্রতি শ্রদ্ধা ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। একজন শিক্ষক হিসেবে আমি মনে করি নিজের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই। আর এই পাবনা টিটিসির মান্যবর অধ্যক্ষ্য মহোদয়সহ সকল শ্রদ্ধাভাজন শিক্ষক মহোদয়দের আন্তরিকতার জন্য আমরা স্যারদের নিকট চির কৃতজ্ঞ।জানিনা আবার কতদিন পর এই এই জ্ঞান ভান্ডারে প্রশিক্ষণে আসার সৌভাগ্য হবে। সত্যিই মাত্র বার দিনের প্রশিক্ষণে যে এত কিছু ধারণা পাওয়া সম্ভব সেটা কল্পনাও করতে পারি নাই। আর পাবনা টিটিসির স্যার মহোদয়গণ যে প্রশিক্ষণার্থীদের প্রতি এতো আন্তরিক যা নিজে না আসলে হয়তো শুধু কল্প কাহিনীই মনে করতাম। তাই আমার ও বিটিটি কোর্সের পঞ্চম ব্যাচের সকল প্রশিক্ষণার্থীদের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। ট্রেনিং এ আসার পূর্বে আমরা শ্রেণি কক্ষে যে পদ্ধতিতে পাঠ দান করতাম। আমি মনে করি এখান থেকে প্রতিষ্ঠানে ফেরার পর শ্রেণিকক্ষে পাঠদানে কিছুটা হলেও পরিবর্তন আসবে। এই পরিবর্তনের একমাত্র দাবিদার হলেন পাবনা টিটিসির শ্রদ্ধাভাজন স্যার মহোদয়গণ। আর আমরা যারা প্রশিক্ষণ নিতে এসেছি তাদের সকলের প্রতি আমার বিশেষ অনুরোধ আপনারা সবাই আপনাদের দায়িত্বে অবহেকা করবেন না ল্পিজ। কারণ আপনি ক্লাসে যাওয়ার পূর্বে আপনার প্রস্তুতি, পাঠদানে সহায়তাকারী উপকরণ, আপনাদের মানসিক অবস্থা ইত্যাদি যেন কোন ভাবেই আপনার শিক্ষার্থীর উপর কোন বিরুপ প্রভাব না ফেলে। কারণ ক্লাসে যাওয়ার পূর্বে নিজেকে একবার হলেও জিজ্ঞাসা করবেন আমি একজন শিক্ষক। শিক্ষক জাতি মানুষ গড়ার কারিগর। শিক্ষার্থীরা আমাকে আপনাকে যথেষ্ট সম্মান করে থাকে আমরা যেন নিজেদের দুর্বলতার জন্য সেই জায়গা থেকে নিজেকে সরিয়ে না নিই। সকলকে ধন্যবাদ জানিয়ে ধন্যবাদ জানিয়ে আজকের মত এখানেই লিখা শেষ করছি। সকলকের সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে আজকের মত এখানেই শেষ করছি। আল্লাহ হাফেজ।

          মোহাঃ জহুরুল ইসলাম, প্রভাষক- ভূগোল বিভাগ, নূরুজ্জামান বিশ্বাস কলেজ, আল্লারদর্গা, দৌলতপুর, কুষ্টিয়া।    

 

 

 

 

মতামত দিন