আতঙ্ক থেকে বাঁচব কীভাবে?

zohurul islam ০২ এপ্রিল,২০২০ ৮৪৪০ বার দেখা হয়েছে ৪৮৩ লাইক ১৯ কমেন্ট ৪.৭৪ (১৯ )

নতুন করোনাভাইরাস বা কোভিড-১৯ বর্তমানে সারা বিশ্বে একটি আতঙ্কের নাম। প্রথম ও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এই প্রথম পৃথিবীর অসংখ্য দেশের মানুষের মধ্যে মৃত্যুভয় জাগিয়ে তুলেছে কোভিড-১৯ রোগ। এরই মধ্যে এ রোগে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ২ লাখ ৮০ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মৃত মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়েছে সাড়ে ১১ হাজার। বাংলাদেশেও এসেছে করোনার থাবা। আর তার চেয়েও বেশি এসেছে আতঙ্ক। মনের এই আতঙ্ক রোগকে ঠেকানোই এখন অন্যতম সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বাংলাদেশের গ্রাম ও শহর সব জায়গার মানুষের ভেতর একধরনের চাপা আতঙ্ক কাজ করছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের সরকার, প্রতিষ্ঠান ও জনগণ যখন করোনাভাইরাস প্রতিরোধের জন্য একযোগে কাজ করছে, তখন বাংলাদেশে করোনাভাইরাস নিয়ে বিভিন্ন ধরনের মিথ্যা তথ্যসমৃদ্ধ গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এটি সামাজিকভাবে ভয়ংকর। বর্তমানে করোনাভাইরাস প্রতিরোধের চেয়ে গুজব প্রতিরোধ করা মুখ্য কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে। কারণ, কোভিড-১৯ যেহেতু সংক্রামক, সেহেতু গুজবের কারণে ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে। তাতে মানুষ সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে অনেক বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে। তাই এ ক্ষেত্রে গুজব কী, কীভাবে ছড়ায়, কেন ছড়ায় এবং গুজব ও আতঙ্ক কীভাবে প্রতিরোধ করা যায়, সে বিষয়ে আলোচনা করা যেতে পারে।

গুজব কী?
মনোবিজ্ঞানীদের মতে, ‘গুজব হলো একটি নির্দিষ্ট ঘটনাকে কেন্দ্র করে কমিউনিটির মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া একটি গল্প, যা সত্য-মিথ্যার মাপকাঠিতে যাচাইকৃত না।’ কোনো বিষয় নিয়ে একবার গুজব উঠলে তা ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য অতিরিক্ত কোনো প্রচেষ্টার দরকার হয় না। কারণ, মানুষের মুখে মুখে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ছড়িয়ে পড়ে। এ ক্ষেত্রে গুজব করোনাভাইরাসের চেয়েও দ্রুত ছড়াতে সক্ষম। কোনো বিষয় নিয়ে মানুষ যখন আতঙ্কিত, ভীত ও দুশ্চিন্তায় থাকে, তখনই যেকোনো গুজব দ্রুত ছড়াতে সক্ষম হয়। কারণ, এই সময় মানুষের মন বাছবিচার না করে যেকোনো কিছু সহজেই বিশ্বাস করার জন্য উদ্‌গ্রীব থাকে। গুজব তৈরি ও ছড়ানোর জন্য দুটি উপাদান অবশ্যই একসঙ্গে থাকতে হয়। প্রথমত, যে ঘটনা বা বিষয়কে কেন্দ্র করে গুজব তৈরি হবে, সেই ঘটনা জনসাধারণের কাছে গুরুত্বপূর্ণ হতে হবে।ওই ঘটনা সম্পর্কে জনসাধারণের কাছে পরিষ্কার কোনো ধারণা ও যথাযথ কোনো তথ্য থাকবে না।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
লাকী বিশ্বাস
০৯ এপ্রিল, ২০২০ ১১:১৯ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা রইলো। আমার উদ্ভাবনী গল্পটি দেখার বিনীত অনুরোধ করছি


আজিজুল ফকির
০৯ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:০৯ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি


আজিজুল ফকির
০৯ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:০৬ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি


মো: তৌহিদুল ইসলাম
০৯ এপ্রিল, ২০২০ ০৭:৩১ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি


সামিউল ইসলাম
০৯ এপ্রিল, ২০২০ ০৭:০২ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি


মোছাঃ মাকছুদা বেগম
০৮ এপ্রিল, ২০২০ ০৩:২০ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি।


আব্দুল মাজিদ
০৮ এপ্রিল, ২০২০ ০৮:২৫ পূর্বাহ্ণ

nice thanks


মোহাম্মদ অাবুবকর সিদ্দিক
০৭ এপ্রিল, ২০২০ ১০:৫০ অপরাহ্ণ

Thanks


সুজিত দে
০৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:৪৩ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ


মীর্জা মোঃ মাহফুজুল ইসলাম
০৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৭:৫৭ অপরাহ্ণ

করোনা ভাইরাস থেকে নিজে সর্তক থাকুন, অন্যকে ভালো রাখুন, পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি, সেই সাথে মুজিব বর্ষের শুভেচ্ছা.


মফিজুল ইসলাম
০৭ এপ্রিল, ২০২০ ০৪:১৭ অপরাহ্ণ

সময় উপযোগী পোস্ট


আসমা খাতুন
০৬ এপ্রিল, ২০২০ ১২:৫৪ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ


মো: শাহাদাত হোসেন পাটওয়ারী
০৬ এপ্রিল, ২০২০ ১০:২৪ পূর্বাহ্ণ

ধন্যবাদ


মো: তৌহিদুল ইসলাম
০৫ এপ্রিল, ২০২০ ০৯:১৪ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি।


শাহরিণা বিণ সুইটি
০৫ এপ্রিল, ২০২০ ০৪:৫৯ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য অনুরোধ করছি।


অভিজিৎ কুমার মন্ডল
০৫ এপ্রিল, ২০২০ ১২:১৪ অপরাহ্ণ

লাইক এবং পূর্ণ রেটিংসহ ধন্যবাদ ও শুভকামনা রইল।


মুহাম্মদ গোলাম মোস্তফা জিলানী
০৪ এপ্রিল, ২০২০ ১১:০৫ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ


মুহাম্মাদ আলীমুদ্দীন
০৩ এপ্রিল, ২০২০ ০৮:২৬ পূর্বাহ্ণ

রেটিংসহ অভিনন্দন। আমার আপলোড কন্টেন্টগুলো দেখে লাইক, কমেন্ট ও রেটিং করার অনুরোধ রইলো।


আব্দুল্লাহ আত তারিক
০২ এপ্রিল, ২০২০ ১২:৫৯ অপরাহ্ণ

কনফুসিয়াস -“শিক্ষক হবেন জ্ঞান ও প্রজ্ঞার উৎস। তিনি হবেন একজন আদর্শ শাসক”। ঘরে থাকুন, করোনামুক্ত সমাজ গড়ুন । চমৎকার নির্মানে সাধুবাদ ও শুভেচ্ছা নিরন্তর । পূর্ণাঙ্গ রেটিং,লাইক ও কমেন্টসহ আপনার জন্য নিরন্তর ভালোবাসা রইলো । আমার সর্বশেষ কনটেন্ট আদর্শ শিক্ষক দেখার জন্য বাতায়ন বাড়ি আমন্ত্রণ রইলো । লিংক - https://teachers.gov.bd/content/details/548520