**** মানুষের শরীর সত্যের উপযোগী করে সৃষ্টি ****

মোঃ রোকন উদ্দীন ০৭ অক্টোবর,২০২১ ১২০ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৪.০০ ()

**** মানুষের শরীর সত্যের উপযোগী করে সৃষ্টি ****
জীবনকে সুন্দর করতে হলে সত্য বলতে হবে। সত্য চর্চা করতে হবে। সত্যের সঙ্গে বসবাস করতে হবে। সত্যই সুন্দর। সত্যই জীবন। এবং সত্যই উন্নত করে জীবনকে। জীবনের সব বাঁকে সত্যের আনন্দ জাগ্রত থাকে। সত্যের মতো সুন্দর কিছু নেই। সত্যের মতো আনন্দের কিছু নেই। যারা বড় হয় সত্য ধারণ করেই বড় হয়। যারা ইতিহাস সৃষ্টি করে তারা সত্য প্রয়োগেই করে।
মানুষের শরীর সত্যের উপযোগী করে প্রস্তুত করা হয়েছে। সৃষ্টি করা হয়েছে সত্যকে ধারণ করার আয়োজনে। ফলে সত্য মানুষকে এগিয়ে দেয়। মিথ্যা পিছিয়ে দেয়। সত্য নিজেই বিজয়ী। মিথ্যা আপনাতে হেরে যায়।
মিথ্যার কোনো নির্দিষ্টতা থাকে না। সত্যের কোনো অন্যথা হয় না।
মিথ্যা একটি শব্দ। শব্দটি ছোট বড় সবার জানা। সবাই বোঝে মিথ্যা মানে কি? যখন কেউ কথা বলল- আর শ্রোতা বললো তুমি মিথ্যা বলেছ। এর কি অর্থ সবাই বোঝে। যেকোনো বিষয়ে সত্য না বলাটাই মিথ্যা। কথাটি যেই বলুক। যেভাবেই বলুক। এমনকি কৌতুক করে বললেও কিন্তু মিথ্যা মিথ্যা-ই। অনেকে হেসে হেসেই মিথ্যা বলে। অনেকে কথায় কথায় মিথ্যা বলে। অনেকে আবার বিনা প্রয়োজনেও মিথ্যা বলে। কেউ কেউ বন্ধুদের সঙ্গে বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যা বলে। কেউ ফের অকারণও মিথ্যা বলে। আবার মিথ্যা বলার সঙ্গে সঙ্গে কেউ বলে- দুষ্টমি করেছি। এমন করে নানান আয়োজনে মিথ্যা কথার চর্চা হয়।
মিথ্যা বলে। বলতে থাকে। কিন্তু এভাবে মিথ্যা বলার ফল কি দাঁড়াচ্ছে এটি ভাবে না। কি হয় মিথ্যা বললে। কি প্রতিক্রিয়া ঘটে মনে। শরীরে। কেমন করে ঘটে ভাবতে
পারে না। অথবা ভাবেও না। ভাবার প্রয়োজন মনে করে না।
অথচ এটি ভাবা উচিত। গভীরভাবে ভাবা উচিত। কারণ মানুষ তো সবাই ভালো থাকতে চায়। ভালো থাকার আকাক্ষা সবার মনেই ভাসে। সবাই স্বপ্ন দেখে সুখী জীবনের। হয় তো মিথ্যা কথাটিও বলছে ভালো থাকার জন্য। যে বলছে মিথ্যেটি- সে ভেবে নিয়েছে মিথ্যা বললেই বুঝি ভালো থাকা যাবে। সত্যটাকে লুকিয়ে অসত্য বলার যে মানসিকতা কেউ কেউ ভাবেন তাতেই বুঝি সুখ।
কিন্তু বাস্তবে কি হয়? কি দাঁড়ায় মিথ্যার পরিণাম? কি হয় মিথা বলার পর।
মহানবী হজরত মুহাম্মদ স. বলেছেন- মিথ্যা হলো সকল পাপের মা। এ বিষয়টি খুব ভালো করে বুঝতে হবে। মিথ্যাকে কেনো মহানবী পাপের মা বললেন?
মা তো তিনি যিনি সন্তান জন্ম দেন। একজন মা অনেক সন্তান জন্ম দিতে পারেন। দেনও। ঠিক একটি মিথ্যাও অনেক পাপের জন্ম দেয়। একটি মিথা স্থির করার জন্য অনেক মিথ্যা বলতে হয়। মিথ্যা কেবল মিথ্যার জন্ম দেয়। আর মিথ্যা জন্ম দেয় পাপ। যে বা যিনি কথায় কথায় মিথ্যা বলে তার মুখে আর সত্য ফোটেই না। প্রতিটি বিষয়ে সে মিথ্যাই বলতে থাকে। এক সময় লোকেরা জেনে যায় এই লোকটি মিথ্যুক। এর কথা বিশ্বাস করা যাবে না। বিশ্বাস করেও না। ফল হয় এই-তার পরিচিত প্রতিটি মানুষ তাকে এড়িয়ে চলে। বর্জন করে। তার সুখে দুঃখে পাশে থাকে না কেউ। তার বন্ধু থাকে না। যারা থাকে তারাও ছেড়ে যায় ওকে।
মিথ্যাবাদীর কোনো ব্যক্তিত্ব থাকে না। তাকে কেউ সম্মান জানায় না। তার প্রতি শ্রদ্ধা অথবা ভালোবাসা কোনোটিই ঠিক থাকে না। ছোট হোক বড় হোক সবাই তাকে পাশ কাটিয়ে চলে।
শুধু এখানে থেমে থাকে না। মিথ্যার খারাপ ফল পাওয়া যায় নগদ নগদ। এর প্রথম হলো-মিথ্যা বললেই মনের ওপর নেগেটিভ চাপ পড়ে। এক ধরনের বোঝা চেপে বসে। বেশ অস্বস্তি সৃষ্টি হয়। ফলে প্রায় সঙ্গে সঙ্গে মন খারাপ হয়ে যায়। একই সাথে অস্থির হয়ে ওঠে মন। অন্তর্জ্বালা শুরু হয়ে যায়! এর ফল দাঁড়ায় কোনো কিছুতেই আনন্দ পাওয়া যায় না। সুখ পাওয়া যায় না। স্বস্তিও না। কাজে মন বসে না এবং কাজে মনোযোগ থাকে না।
মিথ্যা বললে আরও যে বিষয়টি ঘটে তা হলো-মিথ্যাবাদীর চেহারা খারাপ হয়ে যায়। বিমর্ষ হয়ে যায়। মলিন হয়ে ওঠে। চেহারায় লাবণ্য থাকে না। সৌন্দর্য থাকে না। থাকে না কোনো আকর্ষণ।
আরো যে বিষয় হয়-মিথ্যাবাদী কখনো সাহসী হতে পারে না। তার বুকের ভেতর সাহস থাকে না। সাহস হয় সততা থেকে। মিথাবাদীর তো সততা নেই। সুতরাং সে তো কেবলই ভয়ের ভার বহন করবে। বরাবরই সে ভীতু হয়। মিথ্যার ভয় তাকে জড়োসড়ো করে রাখে। তাকে কূলহারা করে রাখে। কোনো কূলেই ঠাঁই হয় না তার। ফল দাঁড়ায়-কোনো কিছুতে তার আত্মবিশ্বাস থাকে না।
মিথ্যা বললে আরো ভয়ঙ্কর বিষয় হলো-শরীরে জটিল রোগ বাসা বাঁধে। মিথ্যা বলার ধকল সইতে হয় হার্টকে। নিশ্চয় এ ধকল ভালো ধকল নয়। এভাবে বারবার সইতে সইতে এক সময় দুর্বল হয়ে যায় হার্ট। ব্রেইনও সমস্যায় পড়ে। ব্রেইনে চাপ পড়ে বেশ। চাপ পড়তে পড়তে এক সময় ব্রেইনও দুর্বল হয়ে পড়ে। কেউ যখন মিথ্যা বলে তখন সারা শরীরেই এক ধরনের ঝাঁকুনি ওঠে। গোটা শরীরে এর নেগেটিভ প্রতিক্রিয়া ছড়িয়ে পড়ে।
এর কারণ তো আছে।
কারণ হলো-মানুষের শরীরটির কলকব্জা এবং মেশিনারি সবই সত্যকে ধারণ করার উপযোগী। মিথ্যাকে নয়। সত্য যখন মিথ্যার দোষে দুষ্ট হয় তখন তার প্রতিক্রিয়া ভালো হবে না একটিই স্বাভাবিক।
তাই আমাদের উচিত যেকোনো উপায়ে সত্য বলা। যেকোনো ভাবে মিথ্যা পরিহার করা।
নিজেকে সুন্দর ও সুস্থ রাখার জন্যই এটি জরুরি। যারা সুখী হতে চান তাদের উচিত সত্যের সঙ্গে থাকা। সত্য মান্য করা এবং মিথ্যা পরিহার করা।
May be an image of 1 person and text that says "**** মানুষের শরীর শরীরসত্যের সত্যের উপযোগী করেসষ্টি সষ্টি ****"
You and Samsul Islam Islam

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোহাম্মদ বাবুল হোসেন
১০ অক্টোবর, ২০২১ ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ

শারদীয় শুভেচ্ছা । লাইক এবং পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা । আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি । https://www.teachers.gov.bd/content/details/1142085


মোঃ নূর - ই- আলম ছিদ্দিকী
০৮ অক্টোবর, ২০২১ ১২:২৬ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণরেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা ও অভিনন্দন। আপনার সাফল্যের গল্প শোনার অপেক্ষা থাকলাম। আমার কন্টেন্ট দেখার বিনীত আমন্ত্রণ রইল ।


আবু নাছির মোঃ নুরুল্লা
০৭ অক্টোবর, ২০২১ ০৯:৪৬ অপরাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। আমার আপলোড কৃত কন্টেন্ট দেখে পূর্ণ রেটিং সহ আপনার সুচিন্তিত মতামত আশা করছি।


লুৎফর রহমান
০৭ অক্টোবর, ২০২১ ০৭:৫৭ অপরাহ্ণ

Best wishes with full ratings. Sir/Mam. Please give your like, comments and ratings to watch my all contents PowerPoint, blog, image, video and publication of this fortnight. Link: PowerPoint: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1140916 Blog: https://www.teachers.gov.bd/blog-details/624736 Video: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1146021 Video 2: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1123933 Publication: https://www.teachers.gov.bd/content/details/1144072 Batayon ID: https://www.teachers.gov.bd/profile/Lutfor%20Rahman


রমজান আলী
০৭ অক্টোবর, ২০২১ ১০:৫৪ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইল সেইসাথে আমার আপলোডকৃত এ পাক্ষিকের কনটেন্ট দেখে আপনার মুল্যবান মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। নিজে সুস্থ থাকুন, প্রিয়জনকে নিরাপদ রাখুন।


মোঃ মেরাজুল ইসলাম
০৭ অক্টোবর, ২০২১ ১০:২৩ পূর্বাহ্ণ

✍️ সম্মানিত, বাতায়ন প্রেমী শিক্ষক-শিক্ষিকা , অ্যাম্বাসেডর , সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা , প্রেডাগোজি রেটার আমার সালাম রইল। রেটিং সহ আমি আপনাদের সাথে আছি। আমার বাতায়ন বাড়িতে আপনাদের আমন্ত্রণ রইলো। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন , নিজে সুস্থ্ থাকবেন, প্রিয়জনকে নিরাপদ রাখবেন। ধন্যবাদ।🌹


মোঃ রোকন উদ্দীন
০৭ অক্টোবর, ২০২১ ০৮:২৪ পূর্বাহ্ণ

স্যার মেডামদের সহযোগীতা চাই