বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র

সৈয়দা শাহীনুুর পারভীন ২৫ মে,২০১৯ ২৮ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ ()

দেশ ও জাতিকে উন্নতির শিখরে পৌঁছাতে বিদ্যাচর্চার বিকল্প নেই। বই পড়া সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের গৃহীত পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানাই। আমরা সকলে জানি বিদ্যাচর্চার প্রধান স্থান হলো গ্রন্থাগার।বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্র  দেশের বিভিন্ন সরকারি, সিটি কর্পোরেশন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থীদের কে বই পড়ার বিশেষ সুযোগ তৈরী করে দিয়েছে। আবার কখনো কখনো দেখা যায় সিটির বিভিন্ন এলাকায় বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের গাড়ি (গ্রন্থাগার) রাখা হয় যেখান  থেকে পথচারীরা তাদের কাঙ্খিত বই পড়ার সুযোগ পায়।শহর বা মফস্বল এলাকার বিভিন্ন বেসরকারি বিদ্যালয়গুলোতে যদি সপ্তাহের যেকোনো একটি দিনে বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের বই পড়ার ব্যবস্থা করা হয় তাহলে শিক্ষার্থীরা খুবই উপকৃত হবে। কেননা গ্রন্থাগারকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  প্রাণকেন্দ্র বলা হয়। দেশ ও জাতিকে উন্নতির শিখরে পৌঁছাতে বিদ্যাচর্চার বিকল্প নেই।বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র বিভিন্ন বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের প্রতি সুনজর দিলে বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা জ্ঞান অর্জনের ক্ষেত্রে লাভবান হবে।    

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ আব্দুল কাদির
১৭ ফেব্রুয়ারি , ২০২০ ০৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ

Best wishes with full rating.