বিএড ও এমএড কোর্স কি,কেন এবং কোথায় করবেন?

মোঃ শামছুল আলম ০৮ মার্চ,২০২১ ৯৮ বার দেখা হয়েছে ১১ লাইক ১১ কমেন্ট ৫.০০ (১০ )

শিক্ষা বিষয়ে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রির নামই বিএড(ব্যাচেলর অব এডুকেশন) ও এমএড (মাষ্টার অব এডুকেশন)। শিক্ষকতায় যারা আসতে চান এবং শিক্ষকতা পেশায় যারা কর্মরত তাদের জন্যই এসব কোর্স। এসব কোর্সে হাতে কলমে অনেক কিছু শেখানো হয় যা অনেক কাজে লাগে।দেশের সব সরকারি, বেসরকারি, স্বায়ত্তশাসিত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে (মাধ্যমিক স্কুল থেকে কলেজ পর্যন্ত) উভয় ডিগ্রিধারী শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণীর স্কেলে বেতন প্রদান করা হয়।
=>কোর্সের মেয়াদ ও যোগ্যতাঃ
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে বিএড অনার্স ও ১ বছরের কোর্স করানো হয়। জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে ঢাকা টিচার্স ট্রেনিং কলেজে ৪ বছর মেয়াদি অনার্স কোর্স করানো হয়। বাংলাদেশের সকল বিএড কলেজে এখনো ৪ বছরের অনার্স কোর্স চালু হয়নি তাই ভর্তি হবার আগে জেনে নিবেন।ন্যাশনালের বিএড কোর্সে ভর্তি পরীক্ষা হয় তাই আগে পরীক্ষার জন্য ফরম পূরন করবেন তারপর পরীক্ষায় অংশ নিতে হবে।
বিএড ও এমএড কোর্সের ভর্তির যোগ্যতা মেয়াদ অনুযায়ী ভিন্ন ভিন্ন। যেমন ৪ বছর মেয়াদি বিএড অনার্স কোর্সের জন্য প্রার্থিকে উচ্চমাধ্যমিক বা সমমানের পরীক্ষায় ন্যূনতম ২য় বিভাগ বা জিপিএ-২ পেয়ে উত্তীর্ণ হতে হবে।আর টিচার্স ট্রেনিং কলেজগুলর ১ বছর মেয়াদি বিএড কোর্সে ভর্তির যোগ্যতা দ্বিতীয় বিভাগে স্নাতক।
শিক্ষক ক্যাটাগরিতে সরকারি ও বেসরকারি স্কুলের শিক্ষকরা বিএড কোর্স করতে পারেন। এ ছাড়া যারা শিক্ষকতা করেন না তারা টিচার্স ট্রেনিং কলেজগুলোতে অশিক্ষক ক্যাটাগরিতে আবেদন করতে পারবেন।উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে পাস করা শিক্ষার্থীরাও শর্তপূরন সাপেক্ষে ভর্তির সুযোগ পেতে পারেন।বিএড পাস করার পরই কেবল কোনো শিক্ষার্থী এমএড কোর্সের জন্য আবেদন করতে পারবে।
=> যা পড়ানো হয়ঃ
জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত দেশের সব সরকারি-বেসরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজে, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা ইনস্টিটিউটে সাধারণত যেসব বিষয় পড়ানো হয় তা হচ্ছে শিক্ষণ দক্ষতা, মাধ্যমিক শিক্ষা, শিক্ষাক্রম ও শিশুর ক্রমবিকাশ, শিখন, মূল্য যাচাই ও প্রতিফলনমূলক অনুশীলন, মৌলিক কম্পিউটার দক্ষতা এবং কর্মসহায়ক গবেষণা ইত্যাদি। এ ছাড়া বাংলা, ব্যবসায় শিক্ষা, ইংরেজি, গণিত ও বিজ্ঞান এবং সামাজিক বিজ্ঞান, ধর্ম শিক্ষা, কৃষি শিক্ষা, গার্হস্থ্য অর্থনীতি ও তথ্য যোগাযোগপ্রযুক্তিসহ অন্যান্য বিষয়ও পড়ানো হয়।
=> ভর্তি পরীক্ষাঃ
,বিএড, বিএড অনার্স ও এমএড কোর্সে ভর্তির জন্য পরীক্ষায় অংশ নিতে হয়। ১বছর মেয়াদি বিএড কোর্সে ভর্তির জন্য ১০০ নম্বরের পরীক্ষা দিতে হয়। বাংলা, ইংরেজি, গনিত ও সাধারনজ্ঞান বিষয়ে প্রশ্ন থাকে।এ ছাড়া বিভাগ সংশ্লিষ্ট বিষয়েও প্রশ্ন করা হয়। (তবে ৪ বছর মেয়াদী বিএড কোরসে এডমিশন নিতে কোনো পরিক্ষা দিতে হয়না, জিপিএ এর ভিত্তিতে ভর্তি করানো হয়।)
=> সিলেবাসঃ
১ বছর মেয়াদী(২ সেমিস্টার) বিএড কোর্সের সিলেবাস পিডিএফ লিংকঃ
http://nu.ac.bd/.../1BEd-One-Year-Syllabus-2017_pub_date... (নতুন কারিকুলাম অনুযায়ী ২০১৭ সালের জন্য প্রবর্তিত বি এড এর সিলেবাস। এই সিলেবাসটির নতুন বৈশিষ্ট্য হলো ২ টি সিমেষ্টার ভিত্তিক এবং ১ বছর মেয়াদী।)
৪ বছর মেয়াদী(৮ সেমিস্টার) বিএড(অনার্স) কোর্সের সিলেবাস পিডিএফ লিংকঃ http://nu.ac.bd/.../13Bachelor-of-Education-Hons-2013-14.zip
বিঃদ্রঃ ৪ বছর মেয়াদী(৮ সেমিস্টার) বিএড(অনার্স) কোর্সটি মূলত এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার পর আবেদন করতে হয় ।
=> খরচসমূহঃ
এক বছর মেয়াদি বিএড কোর্সে ভর্তি ফি সাধারণত চার হাজার থেকে শুরু করে ছয় হাজার টাকা পর্যন্ত হতে পারে। সরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোতে এককালীন চার হাজার ২৭৫ টাকা পরিশোধ করতে হয়। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানগুলোর খরচ সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের তুলনায় বেশি।
যাঁরা চার বছর মেয়াদি বিএড সম্মান কোর্স সম্পন্ন করতে চান, তাঁদের প্রথম বছর এক হাজার ৮৭৮ টাকায় ভর্তি হতে হয়। এ ছাড়া প্রতিবছর এক হাজার ১২০ টাকা সেশন ফি দিতে হয়।
এমএড কোর্সে ভর্তি হতে হলে এককালীন তিন হাজার ৬৯৫ টাকা পরিশোধ করতে হয়। এ ক্ষেত্রেও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কোর্সের খরচ সরকারি প্রতিষ্ঠানের তুলনায় বেশি। যাঁরা বিএড কোর্স করবেন, তাঁদের জন্য বৃত্তির ব্যবস্থা করে থাকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। কোর্স শেষে মাসে ৩০০ টাকা হারে এক বছর এই শিক্ষাবৃত্তি দেওয়া হয়।
বিঃদ্রঃ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে যদি বিএড কোর্সে ভর্তি হতে চাইলে আপনাকে অবশ্যই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অনার্স/ডিগ্রি কোর্স কমপ্লিট করা ছাত্র-ছাত্রী হতে হবে অন্য কোন বিশ্ববিদ্যালয় এর ছাত্র ছাত্রী জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএড কোর্সে ভর্তি হতে পারবে না । বিএড কোর্সে ভর্তির জন্য যেসব কলেজে বিএড কোর্স করানো হয় সেসব কলেজে যোগাযোগ করতে হবে ।
=> চাকুরির ক্ষেত্রে সুযোগ-সুবিধাঃ
বর্তমানে ব্যাচেলর-অব-এডুকেশন বা বিএড ও মাস্টার্স অব এডুকেশন সম্পন্ন শিক্ষার্থীদের চাকুরির ক্ষেত্রে অনেক সুবিধা রয়েছে। এসব শিক্ষার্থীরা বিসিএস, বিসিএস (শিক্ষা), শিক্ষা মন্ত্রনালয়, শিক্ষা বোর্ড, জাতীয় পাঠ্যপুস্তক বোর্ড, নায়েম, শিক্ষা অধিদপ্তর, শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ সহ অন্যান্য সরকারী চাকুরি। বর্তমানে কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা করার অন্যতম যোগ্যতা চাওয়া হয় বিএড ও এমএড কোর্স সম্পন্ন শিক্ষক। সে ক্ষেত্রে এ কোর্স সহায়কের ভূমিকা পালন করে।
এছাড়া বেসরকারী প্রতিষ্ঠানেও কাজ করার সুযোগ রয়েছে। বর্তমানে বিভিন্ন জাতীয় ও আন্তর্জাতিক এনজিও তাদের শিক্ষামূলক প্রকল্প পরিচালনার ক্ষেত্রে বিএড ও এমএড কোর্স সম্পন্ন দক্ষ জনশক্তি চায়। এগুলোর মধ্যে রয়েছে-Save the Children, US- Aid, AUS-Aid, UNESCO,UNECEF, CAMPE, ব্রাক, প্রশিকা, আহসানিয়া মিশন ইত্যাদি। বর্তমানে প্রায় সবকটি আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে শিক্ষা বিষয়ক প্রধান হিসেবে কাজ করছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর থেকে পাশ করা শিক্ষার্থীরা। যারা বিএড ও এমএড কোর্স সম্পন্ন। মূলকথা বিএড ও এমএড কোর্স করা শিক্ষার্থীরা দক্ষতার সাথে কাজ করার কারণে দিন দিন শিক্ষা ক্ষেত্রে এসব শিক্ষার্থীদের চাহিদা বৃদ্ধি পাচ্ছে।
=> উচ্চ শিক্ষার সুযোগ-সুবিধাঃ
শিক্ষা ক্ষেত্রে উন্নত বিশ্বে উচ্চ শিক্ষার সুবিধা অনেক বেশি। প্রত্যেক বছর শিক্ষার্থীদের বিরাট একটা অংশ বৃত্তি নিয়ে উন্নত দেশে পড়াশুনা করতে যায়। এ ক্ষেত্রে অষ্ট্রেলিয়া, কানাডা, আমেরিকা, যুক্তরাজ্য, জাপান, নিউজিল্যান্ড, ফিলিপাইন ও ভারতের নাম উল্লেখ যোগ্য। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে শিক্ষা বিজ্ঞান বিষয়ক বিভাগ, অনুষদ, ইনস্টিটিউট এমনকি বিশ্ববিদ্যালয় রয়েছে। সেখানে বৃত্তি নিয়ে পড়ার সুযোগ রয়েছে। মূলত বৃত্তির বিষয়টা শিক্ষার্থীর চেষ্টার উপর নির্ভর করে।
উন্নত দেশে যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষায় বৃত্তি দিয়ে থাকে এ গুলোর মাঝে রয়েছে- মোনাস ইউনিভার্সিটি; অস্ট্রেলিয়া, নরোজিয়ান ইউনিভার্সিটি অব লাইফ সাইন্স; নরওয়ে, জর্জ ওয়াশিংটন ইউনিভার্সিটি; যুক্তরাষ্ট্র, ভিক্টোরিয়া ইউনিভার্সিটি; কানাডা, কলোম্বিয়া ইউনিভার্সিটি; যুক্তরাষ্ট্র সহ বিভিন্ন দেশের নামি দামী বিশ্ববিদ্যালয়ে বৃত্তির সুযোগ রয়েছে।
বিভাগ ভিত্তিক বিএড কলেজের নাম ও ঠিকানাঃ
সারাদেশে মোট ১১৬+ টি বৈধ বিএড কলেজ রয়েছে। এর মধ্যে ১৫টি সরকারি এবং বাকিগুলো বেসরকারি কলেজ। তবে সবগুলোই জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত।
১৫টি সরকারি বিএড কলেজের নাম ও যোগাযোগের ঠিকানাঃ
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, ধানমন্ডি, ঢাকা;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ (পুরুষ), সদর ময়মনসিংহ;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ (মহিলা), সদর ময়মনসিংহ;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, সদর, ফরিদপুর;
-> সরকারি আ: রব সেরনিয়াবাদ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,বরিশাল;
-> সরকারি শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ, সদর, রংপুর;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, সদর, পাবনা,
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, রাজশাহী;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, খুলনা সদর, খুলনা;
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, সদর,
-> যশোর, সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, কোটবাড়ী, কুমিল্লা,
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,সদর, ফেনী,
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,বাকলিয়া, চকবাজার, চট্টগ্রাম,
-> সরকারি টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, সদর, সিলেট,
-> বাংলাদেশ মাদ্রাসা শিক্ষক প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউট, বোর্ড বাজার গাজীপুর অধিভুক্ত।
=>ঢাকা বিভাগের ৩৫টি বেসরকারি বিএড কলেজের নামঃ
(১)এডুকেশন এন্ড ডেভলপমেন্ট ইনস্টিটিউট,বাড়ী নং-৪,রোড নং১৫,সেক্টর -৬,উত্তরা,ঢাকা;
(২) শের-ই-বাংলা টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ ,সেকশন-১১/এ, রোড নং-০৩, বাড়ী নং-১,মিরপুর,ঢাকা;
(৩) আইডিয়াল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, রোড নং ৬/এ,সেক্টর ৫,উত্তরা মডেল টাউন ,ঢাকা;
(৪) বাংলাদেশ টিচার্স্ ট্রেনিং মহাবিদ্যালয়,১৯ ইন্দিরা রোড,ফার্মগেট, ঢাকা;
(৫)মডার্ন টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,৯০/এ নিউ সারকুলার রোড ,মৌচাক,ঢাকা;
(৬) খান বাহাদুর আহসান উল্লাহ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,৩/ডি শ্যামলী,রোড নং-১মোহাম্মদপুর,ঢাকা;
(৭) কলেজ অবএডুকেশন ডেভলপমেন্ট স্টাডিজ, ১২৯ কলাবাগান,মিরপুর রোড ,ঢাকা;
(৮) কলেজ অবএডুকেশন এন্ড রিসার্চ ট্রেনিংবধির হাইস্কুল ক্যাম্পাস,৬২ বিজয় নগর, ঢাকা;
(৯) শেখ জামাল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,৫/১২ এফ লালমাটিয়া, মোহাম্মদপুর,ঢাকা।
(১০) সাভার টিচার্স্ ট্রেনিং ইন্সটিউট,রেডিও কলোনি,বি.পি.এ.টি.সি,সাভার, ঢাকা;
(১১) নিউ রাজধানী টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,নীলক্ষেত হাইস্কুল ক্যাম্পাস, নীলক্ষেত, ঢাকা;
(১২) শেখ ফজিলাতুন্নেসাটিচার্স্ ট্রেনিংকলেজ,৬২৭ কাজীপাড়া,মিরপুর, ঢাকা;
(১৩) মহানগর টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,১৮৬/এ নিউ পল্টন লাইন ,আজিমপুর,ঢাকা;
(১৪) ভিক্টোরিয়াটিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,রেহানা মঞ্জিল,১৯/এ সুভাষ বোস এভিনিউ,লক্ষ্মীপুর,ঢাকা;
(১৫) বিযাম টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,৩৬ নিউ ইস্কাটন রোড, রমনা,ঢাকা; (১৬) ন্যাশনাল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,বাড়ী নং-১২,রোড নং ১/এ,খিলক্ষেত, ঢাকা;
(১৭) সাইক টিচার্স্ ট্রেনিং এন্ড রিসার্চ ইনস্টিটিউট,মিরপুর,ঢাকা।
(১৮) প্রাইম টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,বাড়ী নং-৫৭,রোড নং-৯/এ(নতুন), ধানমন্ডি আ/এ, ঢাকা;
(১৯) ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন কলেজ,গোপীবাগ, ঢাকা;
(২০) আর্শ্চ বিশপ টি আই গাঙ্গুলী শিক্ষক প্রশিক্ষণ কলেজ, ঢাকা;
(২১) ফাতেমা রহমান টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ,নারায়নগঞ্জ;
(২২) গাজীপুর টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, চান্দানা চৌরাস্তা, গাজীপুর;
(২৩) ন্যাশনাল কলেজ অব এডুকেশন,১৩৩/১ পূর্ব ব্রাহ্মন্দী, নরসিংদী সদর, নরসিংদী;
(২৪) আইডিাল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, বেউথা রোড, সদর, মানিকগঞ্জ;
(২৫) টিচার্স্ এডুকেশন কমপ্লেক্স, হাজী কাশেম আলী ম্যানসন, মুক্তাগাছা, ময়মনসিংহ;
(২৬) টাঙ্গাইল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, কাগমারী রোড, কলেজপাড়া, টাঙ্গাইল;
(২৭) রেনেসাঁ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, বকুল তলা, জামালপুর;
(২৮) খান সাহেব আব্দুল জাজিজ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, নীথিলনাথ রোড, নেত্রকোনা;
(২৯) টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, মোহাম্মদী ম্যানশন, বড় বাজার, কিশোরগঞ্জ;
(৩০) এম.এ রৌফ বি এড কলেজ, হীরা বাড়ি রোড, গোপালগঞ্জ; মাদারীপুর (৩১) টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, বকুল তলা, কুলপদ্দী, মাদারীপুর;
(৩২) জে. এম মডেল টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, পশ্চীম খাবাসপুর, ফরিদপুর; (৩৩) রাজবাড়ী টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, রাজবাড়ী;
(৩৪) সানফ্লাওয়ার টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, ফরিদপুর;
(৩৫) হাসেম উদ্দিন বি বি এড কলেজ, নবাবগঞ্জ।
=> বরিশাল বিভাগের ৮টি বেসরকারি বিএড কলেজের নামঃ
এ কলেজগুলোর নাম হলো,
(১) লাল মিয়া টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, কলেজ রোড, বরগুনা।
(২) দক্ষিণবঙ্গ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, মৌকরণ, পটুয়াখালী।
(৩) দক্ষিণবঙ্গ টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, শেরেবাংলা সড়ক, পটুয়াখালী।
এছাড়াও আরো কয়েকটি কলেজ হলো,
(৪) মঠবাড়িয়া টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, পিরোজপুর।
(৫) কলেজ অব এডুকেশন, সদর, বরিশাল।
(৬) পিরোজপুর টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, সদর, পিরোজপুর।
(৭) পটুয়াখালী টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, লতিফ স্কুল রোড, পটুয়াখালী।
(৮) ভোলা অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, ভোলা।
=> চট্টগ্রাম বিভাগের ১৭টি বেসরকারি বিএড কলেজের নামঃ
এ কলেজগুলোর নাম হলো-
(১) এডুকেশন কলেজ, সেকশন -৪, হাউজিং এস্টেট, কুমিল্লা।
(২) এডুকেশন কলেজ, সেকশন -৪, হাউজিং এস্টেট, কুমিল্লা।
(৩) কুমিল্লা মডেল এডুকেশন রিসার্চ সেন্টার, দক্ষিন ঠাকুরপাড়া, লাকসাম রোড, কুমিল্লা।
(৪) কুমিল্লা শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ, রামঘাট, কান্দিপাড়, কুমিল্লা। (৫) কুমিল্লা বিএড কলেজ, ইপিজেট (পশ্চিম), মধ্যম, আশ্রাফপুর, কুমিল্লা।
(৬) বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব টিচার্স্ ট্রেনিং কলেজ, তিতাস, কুমিল্লা। (৭) সেকান্দার শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ, মতলব, চাঁদপুর। হাজীগঞ্জ আইডিয়াল কলেজ অব এডুকেশন, হাজীগঞ্জ, চাঁদপুর।
(৮) ব্রাক্ষ্মনবাড়িয়া শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ, বাড়ী নং -২১, টিএ রোড, উত্তর মোরাইল, ব্রাক্ষ্মনবাড়িয়া।
(৯) লক্ষ্মীপুর টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, উপজেলা সদর, লক্ষ্মীপুর। নোয়াখালী টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, মাইজদী কোর্ট, নোয়াখালী।
(১০) জিয়া এডুকেশন অব ডেভলপমেন্ট ইনস্টিটিউট, চৌমুহনী, বেগমগঞ্জ, নোয়াখালী।
(১১) রিসার্চ ফর এডুকেশন এন্ড ম্যানেজমেন্ট একাডেমী, ১১৬ চট্টেশরী রোড, চকবাজার, চট্টগ্রাম।
(১২) ন্যাশনাল টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, বহদ্দার হাট চান্দগাঁও, চট্টগ্রাম। (১৩) সিটি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, বাড়ী নং-৮ রোড নং ২, বন্টক –সি, হালিশহর, চট্টগ্রাম।
(১৪) মডার্ন টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, ১৩৩১/এ জাকির হোসেন রোড, খুলশী, চট্টগ্রাম।
(১৫) চিটাগাং কলেজ অব এডুকেশন, ১০৫৪ শাহ আমানত সংযোগ সড়ক, চট্টগ্রাম।
(১৬) পরশপাথর শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ, চট্টগ্রাম।
(১৭) কক্সবাজার টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, চৌধুরিপাড়া, ঝিলংজা, কক্সবাজার।
=> সিলেট বিভাগের কলেজের নাম হলো-
(১) জালালাবাদ টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, শাহাজালাল, উপশহর, সিলেট
(২) সীমান্তিক আইডিয়াল টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, খান কমপ্লেক্স, উপশহর মেইন রোড, সোনার পাড়া, সিলেট।
রংপুর বিভাগের কলেজের নামগুলো হলো-
(১) ঠাকুরগাঁও টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, নিশ্চিন্তপুর, ঠাকুরগাঁও
(২) পার্বতীপুর বি এড কলেজ, পার্বতীপুর, দিনাজপুর
(৩) দিনাজপুর টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, বালুবাড়ি, দিনাজপুর
(৪) নীলফামারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, নীলফামারী সদর, নীলফামারী
(৫) রংপুর আদর্শ বি, এড কলেজ, সেন্ট্রাল রোড, কতোয়ালী, রংপুর
(৬) কুড়িগ্রাম টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, সদর, কুড়িগ্রাম
(৭) গোবিন্দগঞ্জ টিচার্স ট্রেনিং মহাবিদ্যালয, গোবিন্দগঞ্জ, গাইবান্ধা।
=> খুলনা বিভাগের বিএড কলেজের নামগুলো :
(১) কলারোয়া টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, কলারোয়া,সাতক্ষীরা।
(২) সুন্দরবন শিক্ষক প্রশিক্ষন কলেজ,মুন্সীপাড়া, সাতক্ষীরা সদর, সাতক্ষীরা।
(৩) হাজী ওয়াজেদ আলী টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,সুলতানপুর, সাতক্ষীরা সদর, সাতক্ষীরা।
(৪) রহিমাএজহার মেমোরিয়াল বি,এড কলেজ,সুভাসিণী,তালা, সাতক্ষীরা।(৫) সাতক্ষীরা টি টি কলেজ, সাতক্ষীরা।
(৬) সারোয়ার খান টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,খালিসপুর,দৌলতপুর,খুলনা।
(৭) আমিরুল ইসলাম কাগজী টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,পাইকগাজা,খূলনা।
(৮) ইনস্টিটিউট অব এডুকেশন লাইব্রেরী এন্ড ম্যানেজমেন্ট, ৯৩মুজগুন্নী মহাসড়ক,বয়রা ,খুলনা।
(৯) ড.মিয়া আব্বাস উদি্দন টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,মোড়লগঞ্জ,বাগেরহাট।
(১০) খানজাহান আলী টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,টাউন নওয়াপাড়া,কাটাখালী, ফকিরহাট,বাগেরহাট।
(১১) বেলায়েত হোসেন বি,এড কলেজ,দেপাড়া বাগেরহাট।
(১২) মুন্সী মেহেরউল্লাহ টিচার্স ট্রেনিং কলেজ, ২৫৩ বিমান বন্দর সড়ক,যশোর।
(১৩) যশোর টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,পারবাড়ী, যশোর।
(১৪) উপশহর টিচার্স ট্রেনিং কলেজ,২৩৬সেক্টর-১, উপশহর।
Copyright© জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ঃ Professional Admin

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
সাবিনা ইয়াসমিন
২৭ মার্চ, ২০২১ ০৮:৪৬ অপরাহ্ণ

চমৎকার, মানসম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করায় আপনাকে ধন্যবাদ। লাইক ও রেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি


মোঃ মুজিবুর রহমান
২১ মার্চ, ২০২১ ১০:০৮ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রল। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


A K M Eadris Ali
২১ মার্চ, ২০২১ ০২:২৭ অপরাহ্ণ

সুন্দর ও শ্রেনী উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে লাইক পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। ভালো থাকুন , সুস্থ থাকুন , নিজেকে নিরাপদে রাখুন । আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে লাইক ও রেটিংসহ মূল্যবান মতামত প্রদানের বিনীত অনুরোধ করছি।


তারক চন্দ্র সরকার
২০ মার্চ, ২০২১ ০৫:৫৯ পূর্বাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী ও মানসম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে অশেষ ধন্যবাদ। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন।


মোঃ এনায়েম খান
১৪ মার্চ, ২০২১ ১১:২৪ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে লাইক,মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি


মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন
১১ মার্চ, ২০২১ ১২:০৫ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আবারও ধন্যবাদ।


মোঃ মেহেদুল ইসলাম
০৯ মার্চ, ২০২১ ০৩:০৫ অপরাহ্ণ

শুভকামনা রইল। আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত , রেটিং ও লাইক প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন মন্তব্য করুন


সেলিম মাহমুদ
০৯ মার্চ, ২০২১ ০১:৪৫ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ নূরল আলম
০৮ মার্চ, ২০২১ ১০:৫৮ অপরাহ্ণ

চমৎকার উপস্থাপন এবং মান সম্মত লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা রইল। আমার বাতায়ন পেইজে আপলোডকৃত ৪৮তম কনটেন্ট দেখে আপনার মতামত দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


লুৎফর রহমান
০৮ মার্চ, ২০২১ ১০:২৭ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৫৪ তম কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


রমজান আলী
০৮ মার্চ, ২০২১ ১০:১৫ অপরাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম। শ্রদ্ধেয় প্যাডাগজি রেটার , এডমিন , সেরা কনটেন্ট নির্মাতা , সেরা উদ্ভাবক , সেরা নেতৃত্ব , সেরা অনলাইন পারফর্মার, বাতায়নের সকল শিক্ষক- শিক্ষিকা ও আইসিটি জেলা অ্যাম্বাসেডর মহোদয়কে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। শিক্ষক বাতায়নে এ পাক্ষিকে আমার আপলোডকৃত ৪১ তম কনটেন্টটি দেখে লাইক,সুচিন্তিত মতামত ও পূর্ণ রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।