খবর-দার

ঔষধি গুণে ভরা ফল ননী- রোকসানা আক্তার সহকারী শিক্ষক (জীববিজ্ঞান), দি ফ্লাওয়ার্স কে. জি এন্ড হাইস্কুল, মৌলভীবাজার

রোকসানা আক্তার ২৭ অক্টোবর,২০২১ ১৯ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( )



মৌলভীবাজার বড়লেখা উপজেলায়  মিলল অসাধারণ ক্ষমতাসম্পন্ন দুর্লভ এক ঔষধি ফল ননি। মানবদেহের জন্য অত্যন্ত কার্যকরী ননি ফল বিভিন্ন রোগের মহৌষধ হিসেবে কাজ করে বলে জানা গেছে।


ননী ফলের ঔষধি গুণ -----


এই গাছের সমস্ত অংশই আলাদা আলাদা ভাবে গুরুত্ব বহন করে।

√ মূল ও গাছের ছাল রঞ্জক ও ঔষধ তৈরিতে কাজে লাগে। 

√√কাণ্ড জ্বালানী ও ছোট আসবাব পত্র তৈরিতে ব্যবহার করা হয়। 

√√√পাতা ও ফল খাদ্য ও নানা প্রকার ঔষধ তৈরিতে লাগে।


বিজ্ঞানীদের মতে এই আশ্চর্য ফলটি ক্যান্সার সহ বিভিন্ন প্রকার সংক্রমণ জনিত রোগ, 

★আর্থ্রাইটিস, 

★মধুমেহ, 

★হাঁপানি, 

★উচ্চ রক্তচাপ ও 

★শারীরিক ব্যাথা উপশমে ব্যবহৃত ঔষধের গুরুত্বপূর্ণ উপাদান সমৃদ্ধ।


 বর্তমানে বিভিন্ন গবেষণায় দেখা গেছে যে এই ফলে ক্যান্সার ফাইটিং নিউট্রিয়েন্ট এবং টিউমার ফাইটিং উপাদান রয়েছে। বিশেষত এটি ব্রেস্ট ক্যান্সারের ক্ষেত্রে খুবই আশা জনক ফল দেখাচ্ছে।


এই ফলের রস রক্ত পরিষ্কার ও নানা রকম দূষিত পদার্থকে শরীর থেকে বের করতে সহায়তা করে।


হারের সমস্যার ক্ষেত্রেও ননী খুব উপকারী। যাদের হাটুর ব্যাথা, গাটে গাটে ব্যাথা বা অন্য কোনো আর্থ্রাইটিস জনিত রোগে ভুগছেন তাদের জন্যে এই ফলের রস আশির্বাদ স্বরূপ।


যাদের অতিরিক্ত ইউরিক অ্যাসিড জনিত সমস্যা রয়েছ তারাও মুক্তির জন্যে এই রসের উপর ভরসা করতে পারেন।


বিভিন্ন রোগের উপশমের পাশাপাশি শরীরে টি কোষের উৎপাদন বাড়িয়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে। যেহেতু এই ফলের রসে প্রচুর পরিমাণ বিভিন্ন প্রকার ভিটামিন রয়েছ তাই শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তি দূর করতে ননীর জুড়ি মেলা ভার। এটি এনার্জি লেভেল বাড়ায় ও বিভিন্ন শারীরবৃত্তিও ক্রিয়া উন্নত করে।


এই রস পেটের সমস্যা, চর্মরোগ ও চুলের সমস্যার জন্যও বিশেষ উপকারী।

 এই রসে অ্যান্টি ফাঙ্গল ও অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল গুণ থাকায় এটি স্ক্যাল্পের বিভিন্ন অসস্তি যেমন চুলকানি, ফুসকু়ড়ি ও খুশকির মত সমস্যা কমাতে সক্ষম। 


দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার দেশ গুলিতে এটি সর্দি কাশি, লিভারের সমস্যা ও ম্যালেরিয়া প্রতিরোধে ব্যবহৃত হয়। মূলত এর অ্যান্টি ভাইরাল গুণ সর্দি কাশি ও জ্বরের থেকে আমাদেরকে অনেক টাই দূরে রাখতে সক্ষম।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোহাম্মদ বাবুল হোসেন
২৮ অক্টোবর, ২০২১ ০৮:২৮ পূর্বাহ্ণ

হৈমন্তিক শুভেচ্ছা । লাইক এবং পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা ।আপনার সুপরামর্শ আমার কাজের গতিশীলতা উত্তর উত্তর বৃদ্ধি পাবে এই প্রত্যয় সর্বদা নিরন্তর। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ প্রত্যাশা করছি । https://www.teachers.gov.bd/content/details/1142085


রোকসানা আক্তার
২৯ অক্টোবর, ২০২১ ১২:০৮ পূর্বাহ্ণ

ধন্যবাদ আপনাকে, স্যার