প্রেজেন্টেশন

ছোটদের বড়দের সকলের বঙ্গবন্ধু

Mahmuda Nasrin ১৪ আগস্ট,২০২০ ২৪৬ বার দেখা হয়েছে ৪৫ লাইক ৫৭ কমেন্ট ৪.৫৬ রেটিং ( ৫২ )

ফাল্গুন মাসের দুপুর, শীত যাই যাই করেও যাচ্ছে না। সম্ভ্রান্ত পরিবারের এক গৃহবধু, হাতের কাজ সেরে বাড়ির আমবাগানের ছায়ার এসে দাঁড়ালেন। সূর্য তখন মাথার ওপর, সূর্যমামার শানদার উত্তাপেই যেন লজ্জা পেয়ে আমগাছের ছায়া কুঁকড়ে সংকুচিত হয়ে ঠিক গাছ বরাবর চলে এসেছে। ওই এক চিলতে ছায়ায় দাঁড়িয়ে মা তাকিয়ে আছেন দূর পথের দিকে। স্কুল ছুটির পর খোকা প্রতিদিন এই সময়ই আসে। সম্ভ্রান্ত বংশের বড় ছেলে, সবার আদরের দুলাল; চকিতে মা দেখলেন কে যেন হেঁটে আসছে। হাঁটার ধাঁচ বলে এ তারই খোকা। কিন্তু পুরো শরীর চাদর মুড়ি দেওয়া কেন? এগিয়ে গেলেন মা, এ যে খোকাই। কি হয়েছে বাবা? মায়ের উদ্বিগ্ন প্রশ্ন। কই কিছু হয়নি তো! ছেলের ভাবলেশহীন উত্তর। তোমার জামা পায়জামা কই।

ও এই কথা? স্কুল থেকে ফেরার সময় দেখলাম একটি ছেলের গায়ে কোনো জামা কাপড় নেই। আমারই সমান; এই শীতে ওর কাটে কি করে বলো তো মা?  তাই আমার জামা পায়জামা খুলে ওকে পরিয়ে দিয়ে এসেছি। ছেলেটা কি যে খুশি হয়েছে! মা একটু চিন্তিত হলেন ছেলের কাণ্ড দেখে। আবার পরক্ষণেই গর্বে বুক ফুলে উঠলো, কত উদার হয়েছে তার ছেলেটা।

এই হলো বঙ্গবন্ধু। দশ বছর বয়সেই যিনি নিজের গায়ের কাপড় খুলে অন্যকে দান করে দিতে পেরেছিলেন। মধুমতি আর ঘাগোর নদীর তীরে এবং হাওড়-বাওড়ের মিলনে গড়ে ওঠা বাংলার অবারিত প্রাকৃতিক পরিবেশ টুঙ্গিপাড়া গ্রামটি অবস্থিত। জেলার নাম ফরিদপুর (আজকের গোপালগঞ্জ)। গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া গ্রামে সারি সারি গাছগুলো ছিল ছবির মতো সাজানো। নদীতে তখন বড় বড় পালতোলা পানশি, কেরায়া নৌকা, লঞ্চ ও স্টিমার চলতো। বর্ষায় গ্রামটিকে মনে হতো যেন শিল্পীর আঁকা জলে ডোবা একখণ্ড ছবি। এই টুঙ্গিপাড়ারই একটি বনেদী পরিবারের নাম শেখ পরিবার।

১৯২০ সালের ১৭ মার্চ। এদিন শেখ লুৎফর রহমান ও তার সহধর্মিনী সায়রা খাতুনের ঘরে জন্ম নিলো একটি ফুটফুটে চেহারার শিশু। বাবা-মা আদর করে নাম রাখলেন খোকা। এই খোকাই হলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জগৎ স্বীকৃত সমগ্র বাঙালির প্রিয় মানুষ।

তিনি ছিলেন একজন মাতৃভক্ত সন্তান। শৈশব-কৈশোরে বাবা-মা তাকে আদর করে খোকা বলে ডাকতেন। বঙ্গবন্ধু ছিলেন তাদের তৃতীয় সন্তান। স্বভাবের দিক দিয়ে ছিলেন একটু জেদি, চঞ্চল ও একগুঁয়ে।

বঙ্গবন্ধুর শৈশব ও কৈশোর কেটেছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও সুষমামণ্ডিত এ টুঙ্গিপাড়াতেই। পুষ্পভরা শস্য শ্যামলা রূপসী বাংলাকে দেখেছেন। তিনি আবহমান বাংলার আলো-বাতাসে লালিত ও বর্ধিত হয়েছেন।

দোয়েল ও বাবুই পাখি ভীষণ ভালোবাসতেন। বাড়িতে শালিক ও ময়না পুষতেন। আবার নদীতে ঝাঁপ দিয়ে সাঁতার কাটতেন। বানর ও কুকুর পুষতেন বোনদের নিয়ে। পাখি আর জীবজন্তুর প্রতি ছিল গভীর মমতা। মাছরাঙা ডুব দিয়ে কীভাবে মাছ ধরে তাও তিনি খেয়াল করতেন খালের পাড়ে বসে বসে। ফুটবল ছিল তার প্রিয় খেলা। এভাবে তার শৈশব কেটেছে মেঠো পথের ধুলোবালি মেখে আর বর্ষার কাদা পানিতে ভিজে।

গ্রামের মাটি আর মানুষ তাকে প্রবলভাবে আর্কষণ করতো। তিনি শাশ্বত গ্রামীণ সমাজের সুখ-দুঃখ, হাসি-কান্না ছেলেবেলা থেকে গভীরভাবে প্রত্যেক্ষ করেছেন।

বঙ্গবন্ধুর পিতা শেখ লুৎফর রহমান আদালতে চাকরি করতেন । তার মাতা সায়েরা খাতুন ছিলেন গৃহিনী। পিতা-মাতার স্বপ্ন ছিল বড় হয়ে তিনি একজন বিজ্ঞ আইনজীবী হবেন। টুঙ্গিপাড়ার সেই শেখ বাড়ির দক্ষিণে ছিল কাছারি ঘর। এখানেই মাস্টার পতি ও মৌলভী সাহেবদের কাছে ছোট্ট মুজিবের হাতেখড়ি। একটু বড় হলে তাদের পূর্ব পুররুষদের গড়া গিমাডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়ে তার লেখাপড়া শুরু হয়।  এরপর পিতার কর্মস্থল মাদারীপুরের ইসলামিয়া হাইস্কুলে চতুর্থ শ্রেণিতে ভর্তি হয়ে কিছুদিন লেখাপড়া করেন। পরবর্তীতে তার পিতা বদলি হয়ে গোপালগঞ্জে যোগদান করলে তিনি গোপালগঞ্জ মিশন হাইস্কুলে পঞ্চম শ্রেণিতে ভর্তি হন। বিদ্যালয়ের প্রায় প্রতিটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এবং খেলাধুলায় অংশগ্রহণ করতেন তিনি।

পছন্দ করতেন ইতিহাসের বই। এসব কারণে প্রধান শিক্ষক গিরিশ চন্দ্রসহ সকল শিক্ষকের প্রিয়পাত্র হয়ে উঠেছিলেন শেখ মুজিব। শিশুকাল থেকেই শেখ মুজিব ছিলেন পরোপকারী এবং অন্যায়ের প্রতিবাদী। মানুষের দুঃখ-দুর্দশায় যেমন সহযোগিতার হাত বাড়াতেন-তেমনি কারো প্রতি অন্যায় আচরণ দেখলে প্রতিবাদ করতেন। মাত্র তের বছর বয়সে প্রতিবাদের এক বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছিলেন তিনি।

ওই সময় গোপালগঞ্জে স্বদেশি আন্দোলনের এক সমাবেশে জনতার ওপর পুলিশের নির্বিচার লাঠির্চাজ দেখে বিক্ষুব্ধ হয় শিশু মুজিব। ফলে বিক্ষোভকারীরা যখন পুলিশের ওপর চড়াও হয়, তখন তিনিও্ বন্ধুদের নিয়ে যোগ দেন বিক্ষোভকারীর দলে। পুলিশ ফাঁড়িতে শত শত ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে তারা নাজেহাল করে তোলেন পুলিশ সদস্যদের। তার সাহস দেখে অবাক হন থানার বড়কর্তা। তার বয়স যখন চৌদ্দ, তখন সপ্তম শ্রেণিতে পড়াকালীন তিনি হঠাৎ চক্ষুরোগে আক্রান্ত হন । অনেক চিকিৎসা চলে। কিন্তু অসুখ সারে না। এ কারণে তার লেখাপড়া সাময়িক বন্ধ হয়ে যায়। তিন বছর পর আবার সুস্থ হয়ে তিনি অষ্টম শ্রেণিতে ভর্তি হন। মনোযোগী হন লেখাপড়ায়। তখন ঘটে আরেক ঘটনা। গোপালগঞ্জ মিশন হাইস্কুল পরিদর্শনে আসেন শেরেবাংলা একে ফজলুক হক। তাকে সংবর্ধনা জানানোর ব্যাপারে শহরের হিন্দু-মুসলমানদের মধ্যে বিরোধ দেখা দেয়। বিষয়টি কিশোর মুজিবের ভাল লাগেনি। তাই তিনি আয়োজকদের একজন হয়ে মসজিদ প্রাঙ্গণে সেবার স্কুল ঘর মেরামত করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অঙ্গীকার আদায় করেন। এসময় বিরোধীচক্রের রোষানলে পড়েন শেখ মুজিব। রাজনৈতিক কারণ দেখিয়ে গ্রেফতার করা হয় তাকে। হাজতবাস করতে হয় সাতদিন। এটিই তার জীবনের প্রথম কারাবরণ।

তৎকালীন সমাজের অনেকটা প্রথা হিসেবেই আত্মীয়তার বন্ধন অক্ষুণ্ন রাখতে এগার বছর বয়সে বঙ্গবন্ধুকে বিয়ে দেওয়া হয়। তখন তার প্রিয়তমা স্ত্রী রেণুর বয়স মাত্র তিন কি চার বছর। বিয়ের দু’বছর পর বঙ্গবন্ধুর শ্বশুর মারা গেলে তার স্ত্রী তাদের বাড়িতে স্থায়ীভাবে চলে আসেন এবং এখানেই লালিত পালিত হন। ১৯৪২ সালে ম্যাট্রিক এবং ১৯৪৭ সালে কলকাতার ইসলামিয়া কলেজ থেকে বিএ পাস করেন তিনি। ১৯৪৮ সালে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগে ভর্তি হন। এ সময় শুরু হয় তার রাজনৈতি জীবনের সংগ্রামী অধ্যায়।

শৈশব থেকেই তিনি খুব অধিকার সচেতন ছিলেন। অন্যায়ের প্রতিবাদ করা ছিল তার চরিত্রের অন্যতম বৈশিষ্ট্য। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের সক্রিয়কর্মী হামিদ মাস্টার ছিলেন তার গৃহ শিক্ষক। তার এক স্যার তখন গরিব ও মেধাবী ছাত্রদের সাহায্য করার জন্য একটি সংগঠন করেছিলেন। শেখ মুজিব ছিলেন এই সংগঠনের প্রধান কর্মী। বাড়ি বাড়ি ধান চাল সংগ্রহ করে ছাত্রদের সাহায্য করতেন। তিনি ফুটবল খেলতে ভালোবাসতেন। স্কুল টিমের নেতা হয়ে বেশ কয়েকবার জিতে যায় তার দল। শৈশব থেকেই তিনি তৎকালীন সমাজ জীবনের জমিদার, তালুকদার ও মহাজনদের অত্যাচার, শোষণ ও প্রজা নিপীড়ন দেখেছেন। গ্রামের হিন্দু মুসলমানদের সম্মিলিত সামাজিক আবহে তিনি দীক্ষা পান অসম্প্রদায়িকতার। আর পড়শি দরিদ্র মানুষের দুঃখ, কষ্ট তাকে সারাজীবন সাধারণ দুঃখী মানুষের প্রতি ভালবাসায় সিক্ত করে তোলে। বস্তুতপক্ষে সমাজ ও পরিবেশ তাকে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায়ের সংগ্রাম করতে শিখিয়েছে। তাই পরবর্তী জীবনে তিনি কোনো শক্তির কাছে সে যত বড়ই হোক আত্মসমর্পণ করেননি; মাথানত করেননি।

টুঙ্গিপাড়ার সেই দুরন্ত কিশোর শেখ মুজিবের নাম শুধু টুঙ্গিপাড়ায় সীমাবদ্ধ থাকেনি। তার নাম ছড়িয়ে গেছে সারা বাংলায়, সারাবিশ্বে। পরিণত বয়সে তিনি হয়ে উঠেছিলেন শোষিত, বঞ্চিত, গণমানুষের নেতা, স্বাধীন বাংলার স্বপ্নদ্রষ্টা। তার সঠিক নেতৃত্বে এবং আহ্বানের কারণেই একাত্তরে বাংলার দামাল ছেলেরা স্বাধীনতা যুদ্ধে ঝাঁপ দেয়, পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠীকে পরাজিত করতে সক্ষম হয়। বাংলাদেশ একটি পতাকা ও একটি মানচিত্র নিয়ে গর্ব করার সুযোগ পায়। তার অশেষ অবদান এবং আত্মত্যাগের জন্যই তিনি আজ আমাদের কাছে জাতির পিতা, বঙ্গবন্ধু, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, স্বাধীনতার মহান স্থপতি।

(লেখা নিউজনেক্সটবিডি ডটকম থেকে সংগৃহীত)

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
সারমিনা ইয়াসমিন
২৪ নভেম্বর, ২০২০ ০২:৪৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইল।


মোঃ ফাইজুর রহমান
২৪ নভেম্বর, ২০২০ ১০:৪২ পূর্বাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী ও মান সম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধি করার জন্য ধন্যবাদ। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইল।


রাবেয়া নাছরিন রত্না
২২ নভেম্বর, ২০২০ ০৯:৪৫ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী ও মান সম্মত কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধি করার জন্য ধন্যবাদ। লাইক,কমেন্ট ও পূর্নরেটিং সহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।


উম্মে হাবিবা আক্তার
০৫ অক্টোবর, ২০২০ ০৭:৩৯ অপরাহ্ণ

শুভকামনা রইল


মোছাঃ মঞ্জিলা আকতার
১৮ আগস্ট, ২০২০ ১০:৫০ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং ও লাইকসহ শুভকামনা আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি https://www.teachers.gov.bd/content/details/663735


কানিজ মায়েরা
১৮ আগস্ট, ২০২০ ০৬:০১ অপরাহ্ণ

লাইক,র্পূন রেটিং সহ শুভকামনা। আমার 6thকন্টেন্টটি দেখে লাইক, রেটিং ও পরামর্শ দেয়ার অনুরোধ রইল।


মোঃ আব্দুল আলীম
১৬ আগস্ট, ২০২০ ০২:৩৮ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ ধন্যবাদ আমার কন্টেন্ট দেখার জন্য অনুরোধ করছি।


মেফতাহুন নাহার
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১১:২৫ অপরাহ্ণ

শুভেচ্ছা-অভিনন্দন ও শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে রেটিং, লাইক ও কমেন্ট দেয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল।


অচিন্ত্য কুমার মন্ডল
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৯:৫৮ অপরাহ্ণ

শুভকামনা রইলো এবং সেই সাথে পূর্ণ রেটিং । আপনার তৈরি কন্টেন্ট আমার দৃষ্টিতে সেরার তালিকা ভুক্ত। সে জন্য আপনাকে একটু সহযোগিতা করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। সেই সাথে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমার এ সপ্তাহের কন্টেন্ট দেখার ও রেটিং সহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ধন্যবাদ https://www.teachers.gov.bd/content/details/648831


দুলাল কুমার মন্ডল
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৭:০৬ অপরাহ্ণ

চমৎকার কনটেন্ট। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ ধন্যবাদ ও শুভকামনা রইলো আপনার জন্য। নিচে আমার এই লিংকে https://www.youtube.com/watch?v=7gxRP9osqNA প্রবেশ করে সাবস্ক্রাইব করার জন্য বিনীত অনুরোধ রইলো।


সম্পা রাণী দাশ
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৬:৩৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্ট দেখার আমন্ত্রণ রইলো।


উজ্জ্বল কুমার ঘোষ
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৫:০৪ অপরাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ আব্দুল কাদির
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৪:১০ অপরাহ্ণ

পূর্ণটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে মূল্যবান মতামত প্রদানের জন্য অনুরোধ রইল। লিঙ্ক সংযুক্ত। https://www.teachers.gov.bd/content/details/661094 https://www.teachers.gov.bd/content/details/658147 https://www.teachers.gov.bd/content/details/656479


মোঃ মাছুম বিল্লাহ
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৩:৩০ অপরাহ্ণ

চমৎকার!! পূর্ণ রেটিংসহ শুভ কামনা রইল। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মুল্যবান মতামত ও রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (সুমন)
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০১:৪৩ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা রইল। আমার বাতায়ন পেইজে আপনার নিমন্ত্রণ রইল। সর্বদা সুস্থ ও নিরাপদে থাকুন।


মোঃ আফছার আলী প্রাং
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০১:৩১ অপরাহ্ণ

ঘরে থাকুন। পরিবারসহ সুস্থ্য থাকুন। অনেক সময়, শ্রম ও চিন্তা ভাবনা করে নির্মিত কনটেন্টটি সত্যিই অপূর্ব, শ্রেণি উপযোগি ও বাস্তব সম্মত হয়েছে। এটি শ্রেণিকক্ষে সঠিক ভাবে উপস্থান করলে শিক্ষার্থীরা অনেক উপকৃত হবে। আপনার অনিন্দ্যসুন্দর কনটেন্ট এর জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা রইল। আমার এ পাক্ষিকের আপলোডকৃত কনটেন্টগুলো দেখে আপনার গঠণমূলক পরামর্শ ও সুচিন্তিত মতামত প্রত্যাশা করছি।


সন্তোষ কুমার বর্মা
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:২১ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ ধন্যবাদ আমার কন্টেন্ট দেখার জন্য অনুরোধ করছি।


লুৎফর রহমান
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:০৪ অপরাহ্ণ

Thanks for nice content and best wishes including full ratings. Please give your like, comments and ratings to see my content. https://www.teachers.gov.bd/content/details/659360


সিকদার মোঃ শাজিদুর জাহান
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:০০ অপরাহ্ণ

সুন্দর ও শ্রেনী উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে লাইক পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। ভালো থাকুন , সুস্থ থাকুন , নিজেকে নিরাপদে রাখুন । আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে লাইক ও রেটিংসহ মূল্যবান মতামত প্রদানের অনুরোধ রইল।


আব্দুল্লাহ আত তারিক
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর ও শ্রেনী উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে লাইক পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন।


মো মারুফুল হক
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১০:৩৩ পূর্বাহ্ণ

চমৎকার!! পূর্ণ রেটিংসহ শুভ কামনা রইল। আমার কন্টেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মুল্যবান মতামত ও রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি


মো মারুফুল হক
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১০:৩৩ পূর্বাহ্ণ

চমৎকার!! পূর্ণ রেটিংসহ শুভ কামনা রইল। আমার কন্টেন্ট ও ব্লগ দেখে আপনার মুল্যবান মতামত ও রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি


মোঃ তরিকুল ইসলাম
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ অসংখ্য শুভকামনা । আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


সৈয়দা শাহীনুুর পারভীন
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৯:১০ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


বিপুল সরকার
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৮:৫২ পূর্বাহ্ণ

স্যার,নমস্কার বাতায়নে সক্রিয় থাকায় আপনাকে -স্বাগত। আপনি মানসম্মত ও শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করেছেন।আপনাকে অভিনন্দন।লাইক কমেন্ট পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা রইল সেই সাথে আপনার দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করছি।আমার আপলোড কৃত কন্টেন্ট দেখে মতামত দেয়ার অনুরোধ রইল।( bipulsarkar1977@gmail.com ) (01730-169555)


মোছাঃ মাহ্‌মুদা বেগম নূরী
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৮:১৮ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল।


বিনয় কুমার বিশ্বাস
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৮:১৬ পূর্বাহ্ণ

মুজিব শতবর্ষের শুভেচ্ছা রইল । পূর্ণ রেটিং ও লাইকসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ । মন্তব্য করুন


আবুল কালাম আজাদ
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৮:০৪ পূর্বাহ্ণ

সম্মানিত প্যাডাগজি রেটার মহোদয়গণ, সেরা কনটেন্ট নির্মাতা, উদ্ভাবক এবং প্রাণের শিক্ষক বাতায়নের শিক্ষকমন্ডলী আস্‌সালামু আলাইকুম। আপনাদের দেয়া উৎসাহ নিয়ে এ পর্যন্ত ৬৯ টি কন্টেন্ট শিক্ষক বাতায়নে আপলোড করেছি। বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন ভাবে আপনারা পরামর্শ দিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার পথ দেখিয়েছেন, সে জন্য আপনাদেরকে অশেষ ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। তাই আমার এ পাক্ষিকের কনটেন্ট ৪র্থ শ্রেণির বিজ্ঞান বিষয়ের অধ্যায়ঃ ৭ , (প্রাকৃতিক সম্পদ সংরক্ষণ ) কন্টেন্ট দেখে আপনাদের মূল্যবান পরামর্শ , পূর্ণ রেটিং , কমেন্ট , লাইক এবং মতামত প্রদানের জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ করছি।


মোঃ মেরাজুল ইসলাম
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৭:৩৭ পূর্বাহ্ণ

কেঁদেছিল আকাশ, ফুপিয়ে ছিল বাতাস। বৃষ্টিতে নয়, ঝড়ে নয়, এ অনুভূতি ছিল পিতা হারানো শোকের। সেদিন মানুষ কাঁদতে পারেনি কিন্তু প্রকৃতি ঠিকই কেঁদেছিল। ঘাতকেরা সেদিন কাঁদতেও দেয়নি। তবে, বাংলার প্রতিটি ঘর হতে বের হয়েছিল চাপা দীর্ঘশ্বাস। ভয়াল, নিষ্ঠুর, নির্মম ছিল সেই রাত। আজ সেই রক্তঝরা, অশ্রুভেজা ১৫ ই আগষ্ট। জাতীয় শোক দিবস। শোকের দিন। ১৯৭৫ সালের এই দিনে ভোরের আলো ফোটার আগেই কিছু বিপথগামী সেনার হাতে - স্বপরিবারে নিহত হন স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।। এম . মেরাজুল ইসলাম ICT4E জেলা অ্যাম্বাসেডর , হবিগঞ্জ সেরা কন্টেন্ট নির্মাতা-২০২০খ্রীঃ ।।


মোঃ গোলাম ওয়ারেছ
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৭:২৩ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর উপস্থাপনা। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সাথে অসংখ্য শুভকাম। সেই সাথে আমার আগস্ট ২০২০ ইং ১ম পাক্ষিক কন্টেন্ট "জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং" দেখে লাইক ও রেটিং প্রদানের অনুরোধ করছি। সবাই সুস্থ্য ও নিরাপদে থাকুন। ধন্যবাদ।


মোঃ তরিকুল ইসলাম
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৭:১৭ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর ও মানসম্মত কন্টেন্ট এর জন্য পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ও অভিনন্দন।


রমজান আলী
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৭:০৩ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ও অভিনন্দন। আমার আপলোডকৃত কন্টেন্ট দেখে মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি


এইচ.এম. মতিউর রহমান
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০৬:০২ পূর্বাহ্ণ

সম্মানিত স্যার/ম্যাডাম, যারা আপনার কন্টেন্ট দেখে লাইক, রেটিং ও কমেন্ট করছেন, আপনিও তাদের কন্টেন্টগুলো প্লিজ একবার হলেও দেখুন এবং মূল্যায়নের চেষ্টা করুন। আপনার মেধা ও সৃজনশীলতার জন্য পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন।


সাইফুল হক
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০২:৩২ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণরেটিংসহ শুভকামনা কামনা রইল । আমার আপলোডকৃত কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান পরামর্শ , লাইক ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ রইল ।


তাছলিমা আক্তার
১৫ আগস্ট, ২০২০ ০১:৫৮ পূর্বাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম । লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা ও অভিনন্দন । ভালো থাকুন , সুস্থ থাকুন , নিজেকে নিরাপদে রাখুন । আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে লাইক ও রেটিংসহ মূল্যবান মতামত প্রদানের অনুরোধ রইল । https://www.teachers.gov.bd/content/details/639037


মোঃ রওশন জামিল
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর ও মানসম্মত কন্টেন্ট এর জন্য পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ও অভিনন্দন। কন্টেন্ট আপলোড করে প্রাণপ্রিয় বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য ধন্যবাদ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, সাবধানে থাকুন, সতর্ক থাকুন। সুস্থ্য থাকুন।।।। বাতায়নে এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কন্টেন্ট এ রেটিংসহ আপনার মূল্যবান মতামত দেবার অনুরোধ রাখলাম।।


মোঃ রওশন জামিল
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর ও মানসম্মত কন্টেন্ট এর জন্য পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ও অভিনন্দন। কন্টেন্ট আপলোড করে প্রাণপ্রিয় বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য ধন্যবাদ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, সাবধানে থাকুন, সতর্ক থাকুন। সুস্থ্য থাকুন।।।। বাতায়নে এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কন্টেন্ট এ রেটিংসহ আপনার মূল্যবান মতামত দেবার অনুরোধ রাখলাম।।


মোঃ রওশন জামিল
১৫ আগস্ট, ২০২০ ১২:০৪ পূর্বাহ্ণ

সুন্দর ও মানসম্মত কন্টেন্ট এর জন্য পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ও অভিনন্দন। কন্টেন্ট আপলোড করে প্রাণপ্রিয় বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য ধন্যবাদ। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন, সাবধানে থাকুন, সতর্ক থাকুন। সুস্থ্য থাকুন।।।। বাতায়নে এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত কন্টেন্ট এ রেটিংসহ আপনার মূল্যবান মতামত দেবার অনুরোধ রাখলাম।।


মোছা.সালমা খাতুন
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:৫৬ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং ও লাইকসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। আমার উদ্ভাবনী গল্প ও ভিডিও কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ ।


প্রদীপ কুমার রায়
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:৪৭ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং ও লাইকসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ ।


আব্দুল কাদির
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

Nice presentation.Best of luck.Plz visit my page.


সুলতান মাহমুদ
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণরেটিংসহ শুভকামনা কামনা রইল । আমার আপলোডকৃত কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান পরামর্শ , লাইক ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ রইল ।


আমিন উদ্দিন
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:৩১ অপরাহ্ণ

Thank you sir like and fully point with well wishes and stay safe. Please visit my batayon I'd and give you valuable opinion


উজ্বল কুমার মজুমদার
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:১৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


সুজিত দেব
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:১২ অপরাহ্ণ

আদাব /নমস্কার স্যার। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন, বাতায়নের সাথে থাকুন। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ অসংখ্য শুভকামনা । আমার এ পাক্ষিক এর কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। আপনার সুস্থতা কামনা করছি।


বিপ্লব কুমার দাস
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১১:১২ অপরাহ্ণ

সাথে আছি সাথে থাকবেন। লাইক ও রেটিংসহ শুভ কামনা। আমার এ সপ্তাহের কন্টেন্ট দেখে লাইক কমেন্টস ও রেটিং দেয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


অচিন্ত্য কুমার মন্ডল
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:২৯ অপরাহ্ণ

শুভকামনা রইলো এবং সেই সাথে পূর্ণ রেটিং । আপনার তৈরি কন্টেন্ট আমার দৃষ্টিতে সেরার তালিকা ভুক্ত। সে জন্য আপনাকে একটু সহযোগিতা করতে পেরে নিজেকে ধন্য মনে করছি। সেই সাথে কর্তৃপক্ষের সুদৃষ্টি কামনা করছি। আমার এ সপ্তাহের কন্টেন্ট দেখার ও রেটিং সহ মতামত প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ধন্যবাদ https://www.teachers.gov.bd/content/details/648831


পার্থ সারথী নাথ
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:২৯ অপরাহ্ণ

সুন্দর উপস্থাপনা, এই পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৭ম শ্রেণির জলবায়ুর পরিবর্তন কনটেন্টে লাইক, পূর্ণ রেটিংসহ মতামত আশা করছি। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিজে বাচুঁন- দেশকে বাচাঁন। অনলাইন ক্লাসের মাধ্যমে বর্তমান শিক্ষা ব্যবস্থা এগিয়ে যাক, শিক্ষক বাতায়ন সমৃদ্ধ হোক।


Purnima Das
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:২৭ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার সুচিন্তিত মতামত ও রেটিং প্রদানের অনুরোধ রইল।


মোসাঃ রাফিয়া খাতুন
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:২১ অপরাহ্ণ

Thank you sir like and fully point with well wishes and stay safe. Please visit my batayon I'd and give you valuable opinion.


স্বরুপ কুমার দাস
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:১৪ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা। আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও রেটিং প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


নাজমুন্নাহার শিউলি
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:১৩ অপরাহ্ণ

Nice presentation.Best of luck.Plz visit my page.


নাজমুন্নাহার শিউলি
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:১২ অপরাহ্ণ

Nice presentation.Best of luck.Plz visit my page.


সাইফুল ইসলাম
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:১১ অপরাহ্ণ

অসাধারন


মোহাম্মদ আব্দুল মালেক
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:০৩ অপরাহ্ণ

সাথে আছি সাথে থাকবেন। লাইক ও রেটিংসহ শুভ কামনা। আমার এ সপ্তাহের কন্টেন্ট দেখে লাইক কমেন্টস ও রেটিং দেয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। ধন্যবাদ । website: www.teachersnews24.com


মো. শাহাব উদ্দিন
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:০২ অপরাহ্ণ

অনেক অনেক শুভ কামনা রইল। আমার কনটেন্টগুলো দেখে আপনার গঠণমূলক পরামর্শ ও সুচিন্তিত মতামত প্রত্যাশা করছি।


সঞ্জয় ভৌমিক
১৪ আগস্ট, ২০২০ ১০:০১ অপরাহ্ণ

শ্রেনী উপযোগী ও চমৎকার কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।আপনার জন্য রইল লাইক রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন।আমার সর্বশেষ কনটেন্ট "পুরুষ প্রজননতন্ত্র ও এর হরমোনাল ক্রিয়া" https://www.teachers.gov.bd/content/details/661174 দেখে পূর্ণ রেটিং সহ আপনার মূল্যবান মতামত দেওয়ার বিনীত অনুরোধ করছি।