খবর-দার

মাস্ক থাক উৎসবের কেন্দ্রে

মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান (সুমন) ২০ এপ্রিল,২০২১ ৪৯ বার দেখা হয়েছে ১০ লাইক ১১ কমেন্ট ৪.৮৬ রেটিং ( )

বর্তমান বৈশ্বিক করোনা মহামারিতে  যে কোন উৎসবের প্রাণকেন্দ্রে  থাকুক মাস্ক। এ বছর বলতেই হচ্ছে, উৎসবের চেয়ে জীবনের মূল্য বেশি। তাই এক বছর উৎসব প্রায় হবে না। ইতিমধ্যে অনেক অনুষ্ঠান বন্ধ করা হয়েছে সারা দেশে। মানুষের চলাচলের ওপর বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের কারণে। এ সব মানতেই হবে আমাদের।

সবকিছু মেনেই উৎসব হবে বাড়িতে, ঘরের চৌহদ্দিতে। সেখানেও যে যা ইচ্ছা তাই করা যাবে, তাও নয়। কারণ অনেক মানুষ একখানে জমায়েত হলেই সংক্রমণের সম্ভাবনা তৈরি হয়। এ জন্য মানতে হবে স্বাস্থ্যবিধি। এই করোনাকালে এর প্রধান উপকরণ হলো মাস্ক এবং ঘনঘন সাবান দিয়ে হাত ধোয়া। বন্ধুবান্ধবেরা বাড়িতেই আসুন আর আপনিই যান তাঁদের কাছে, এবার মুখে থাকবে মাস্ক। থাকবে নয়। রাখতেই হবে। আনন্দ করতে গিয়ে সংক্রমিত হওয়ার কোনো কারণ নেই।দীর্ঘ মেয়াদে মাস্ক ব্যবহার করতে হতে পারে- এমন আগাম ধারণা থেকে অনেক প্রতিষ্ঠান তৈরি করছে বিভিন্ন নকশার বিচিত্র মাস্ক। এগুলো যেমন ফ্যাশনে এনেছে নতুনত্ব, তেমনি ঠেকাচ্ছে সংক্রমণ। পোশাকের সঙ্গে মিলিয়েও পাওয়া যায় মাস্ক। ফলে বিষয়টি হয়ে উঠেছে ফ্যাশনের নতুন ট্রেন্ড।ট্রেন্ডি বিষয়টি অনেকের পছন্দ না হলেও এবার এ থেকে মুক্তি পাওয়ার কোনো উপায় নেই। বরং বলাই হচ্ছে, মাস্ক না পরলে মানুষ এখন স্মার্ট হচ্ছে না। এ ছাড়া এখন নো মাস্ক নো সার্ভিসের যুগ অথবা নো মাস্ক নো এন্ট্রির যুগ। চাইলেও মাস্ক ছাড়া অনেক কিছু করতে পারবেন না। এবারের বর্ষবরণ উৎসব যত সীমিত পরিসরেই হোক না কেন মাস্ক তাই হয়ে উঠেছে গুরুত্বপূর্ণ। বিভিন্ন ধরনের, বিভিন্ন রঙের ও নকশার মাস্ক রাখুন নিজের সংগ্রহে। যখন যে পোশাক পরছেন চাইলে তার সঙ্গে মানিয়ে পরে ফেলুন আপনার পছন্দের মাস্কটি- আবালবৃদ্ধবনিতা সবাই।শিশুদের উপযোগী বিভিন্ন ধরনের মাস্ক পাওয়া যায় এখন হাতের নাগালে। উজ্জ্বল রঙের মাস্ক বাছুন তাদের জন্য। উজ্জ্বল রঙের ফুল-পাখি-লতাপাতার মাস্ক নিন শিশুদের জন্য। কিংবা তাদের পছন্দের বিভিন্ন কাল্পনিক চরিত্রের ছবিযুক্ত মাস্ক বাছুন। তাতে তাদের মাস্ক পরানো সহজ হবে। তাদের জন্য একাধিক মাস্ক রাখুন সঙ্গে। ঘরের বাইরে শিশুদেরও মাস্ক ছাড়া থাকতে দেবেন না।

এ বর্ষবরণে ফ্যাশন হোক স্বাস্থ্যকর। সঙ্গে থাকুক মাস্ক।


মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
সাধনা রানী সূত্রধর
২৯ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:৪৪ অপরাহ্ণ

সময়োপযোগী সতর্কতা পোস্ট শিক্ষক বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য আপনাকে অভিনন্দন জানাই। আশা করি আপনি আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য প্রদান করে আপনার ভালো কাজ গুলো এগিয়ে নিয়ে যাবেন এবং আমাদের সমৃদ্ধ করবেন। শুভ কামনা রইল আপনার জন্য।আমার বাতায়ন আইডি লিংক। আমার কন্টেন্ট ও আপলোডকৃত ভিডিও, ছবি ও ব্লগে আপনার মূল্যবান মতামত আশা করছি। https://www.teachers.gov.bd/profile/shadhanabd


মোঃ আমান উল্যাহ্
২৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৬:২৭ অপরাহ্ণ

পূর্ণ লাইক ও পুর্ণরেটিং সহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। আমার কন্টেন্ট দেখার আমন্ত্রণ রইল।


আবু নাছির মোঃ নুরুল্লা
২৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৬:২০ অপরাহ্ণ

পূর্ণ লাইক ও পুর্ণরেটিং সহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। আমার কন্টেন্ট দেখার আমন্ত্রণ রইল।


শাহ আলম মিঞা
২৩ এপ্রিল, ২০২১ ০২:১০ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্যে শুভ কামনা। সম্মানিত শ্রদ্ধেয় প্যাডাগজি রেটার মহোদয়, সেরা কনটেন্ট নির্মাতা , সেরা উদ্ভাবক , সেরা নেতৃত্ব , সেরা অনলাইন পারফর্মার, বাতায়নের সকল শিক্ষক- শিক্ষিকা ও আইসিটি জেলা অ্যাম্বাসেডর মহোদয়কে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। সম্মানিত শ্রদ্ধেয় প্যাডাগজি রেটার মহোদয়, শ্রদ্ধেয় এডমিন মহোদয় ও শ্রদ্ধেয় শিক্ষকগণকে আমার সকল কনটেন্ট দেখে আপনাদের মূল্যবান মন্তব্য সহ পূর্ণ রেটিং ও লাইক দেয়ার জন্যে সবিনয়ে অনুরোধ করছি। ৫৪’তম ও ৫০’তম কনটেন্ট লিংকঃ https://www.teachers.gov.bd/content/details/897130, https://www.teachers.gov.bd/content/details/895257


মামুন হোসেন
২২ এপ্রিল, ২০২১ ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ

শুভ কামনা রইলো ।


মামুন হোসেন
২২ এপ্রিল, ২০২১ ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ

শুভ কামনা রইলো ।


মোঃ জাফর ইকবাল মন্ডল
২২ এপ্রিল, ২০২১ ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ

আসসালামু আলাইকুম, লাইক ও পুর্ণরেটিং সহ আপনার জন্য শুভ কামনা নিরন্তর। আমার গত ০৩/০৪/২০২১ ইং তারিখে আপলোডকৃত পানিতে ডোবা ৪র্থ প্রাথমিক রিজ্ঞান কনটেন্ট দেখার অনুরোধ রইলো।।কনটেন্ট লিঙ্কঃ https://bit.ly/3sQCOGA


মোঃ আবুল কালাম
২১ এপ্রিল, ২০২১ ০১:২২ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ৭৪তম কনটেন্ট ও ব্লগ দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মনজুরুল আলম
২০ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৩০ অপরাহ্ণ

######## কথায় নয়, কাজে বিশ্বাসী ########### আপনার শ্রম যেন বৃথা না যায় এই প্রত্যাশা আমার। কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধশালী করায় শুধু লাইক ও কমেন্ট নয়, পূর্ণ রেটিংও দিলাম। আমার এ পাক্ষিকের প্রেজেন্টেশন ৮ম শ্রেণির আইসিটি বিষয়ের প্রথম অধ্যায় থেকে "কর্মসৃজন ও কর্মপ্রাপ্তিতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির ব্যবহার" দেখে লাইক ও পূর্ণ রেটিং দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ৷৷৷৷৷৷৷৷৷৷৷ আমার ছবিতে ক্লিক করলেই পৌঁছে যাবেন আমার প্রোপাইলে।


আজিজুল হক
২০ এপ্রিল, ২০২১ ১১:০০ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট তৈরি করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।আমার পাক্ষিক দেখে লাইক,রেটিংসহ মতামতের জন্য অনুরোধ করছি।


মোহাম্মদ হারুন অর রশিদ
২০ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৩১ অপরাহ্ণ

অসাধারণ লিখেছেন। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ অনেক অনেক ধন্যবাদ ও শুভ কামনা রইলো। "অনলাইনে গণিত পড়ানোর সমস্যার সমাধান" শীর্ষক একটি উদ্ভাবনের গল্প আপলোড করেছি। অনলাইনে গণিত পড়াতে গেলে সবচেয়ে বেশি যে সমস্যায় পড়ি তা হলো কম্পাস, রুলার ও চাঁদার ব্যবহার করতে না পাড়া। আশা করি এই ভিডিওতে আপনি সমস্যার সমাধান খুজে পাবেন। আপনার মূল্যবান রেটিং প্রত্যাশা করছি।