খবর-দার

পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে না : প্রতিমন্ত্রী

মোঃ ওবায়দুর রহমান ( সুমন ) ০৫ জুলাই,২০২০ ৩ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ৫.০০ রেটিং ( )

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে আমাদের আগামী প্রজন্ম শিক্ষার্থীদের তো আর ধব্বংসের মুখে ঠেলে দিতে পারি না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন, সে পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার একটি তারিখ (৬ আগস্ট) দেয়া হয়েছে। সে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে না। আর এজন্য শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ব্যবস্থা করতে আমাদের সরকার ইতোমধ্যে ঘরে বসে শিক্ষার্থীদের জন্য সংসদ টিভির মাধ্যমে ক্লাস চালিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা নিয়েছে।

রোববার (৫ জুলাই) দুপুরে কুড়িগ্রামের ধরলা ব্রীজের পাশে রাস্তার ওপর আশ্রয় নেয়া দেড় শতাধিক বানভাসির মাঝে ত্রাণ বিতরণকালে স্থানীয় সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, আজকে সারা বিশ্ব করোনা নিয়ে যখন আতঙ্কিত তখন আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কিন্তু তা নিয়ে আতঙ্কিত নন। তিনি করোনা মোকাবেলায় মানুষের জন্য হাজার হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দিয়েছেন।

এসময় উপস্থিত ছিলেন কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ রেজাউল করিম, পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান বিপিএম, সিভিল
সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান, জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. জাকিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আমান উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু ও কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আতাউর রহমান বিপ্লব, সিনিয়র সাংবাদিক সফি খানসহ জেলার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
মোঃ ওবায়দুর রহমান ( সুমন )
০৫ জুলাই, ২০২০ ০৮:১৯ অপরাহ্ণ

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন বলেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দিয়ে আমাদের আগামী প্রজন্ম শিক্ষার্থীদের তো আর ধব্বংসের মুখে ঠেলে দিতে পারি না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশনা দিয়েছেন, সে পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার একটি তারিখ (৬ আগস্ট) দেয়া হয়েছে। সে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা হবে না। আর এজন্য শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার ব্যবস্থা করতে আমাদের সরকার ইতোমধ্যে ঘরে বসে শিক্ষার্থীদের জন্য সংসদ টিভির মাধ্যমে ক্লাস চালিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা নিয়েছে।