চিত্র

ষাট গম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন মসজিদ এবং “ঐতিহাসিক মসজিদ যা মুসলিম বাংলার স্বর্ণযুগের প্রতিনিধিত্ব করে”।

মোহাম্মদ আমির হোসেন ২২ নভেম্বর,২০২০ ৩৭ বার দেখা হয়েছে লাইক কমেন্ট ০.০০ রেটিং ( )

ষাট গম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের অন্যতম প্রাচীন মসজিদ এবং “ঐতিহাসিক মসজিদ যা  মুসলিম বাংলার স্বর্ণযুগের প্রতিনিধিত্ব করে”। ষাটগম্বুজ মসজিদ বাংলাদেশের  প্রাচীন মসজিদগুলির মধ্যে বৃহত্তম এবং সমগ্র ভারতীয় উপমহাদেশে মুসলিম  স্থাপত্যের অন্যতম চিত্তাকর্ষক নিদর্শন। ধারণা করা হয় উলুগ খান জাহান আলী  ১৫শ (১৪৫১) শতাব্দীতে এটি নির্মাণ করেন। এ মসজিদটি বহু বছর ধরে ও বহু অর্থ  খরচ করে নির্মাণ করা হয়েছিলো। পাথরগুলো আনা হয়েছিলো রাজমহল থেকে। এটি  বাংলাদেশের তিনটি বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের একটি; বাগেরহাট শহরটিকেই বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানের মর্যাদা দেয়া হয়েছে। ১৯৮৩ খ্রিস্টাব্দে ইউনেস্কো এই সম্মান প্রদান করে।

 মসজিদটির নাম ষাট গম্বুজ (৬০ গম্বুজ) মসজিদ হলেও এখানে গম্বুজ মোটেও ৬০টি  নয়, গম্বুজ, ১১টি সারিতে মোট ৭৭টি। পূর্ব দেয়ালের মাঝের দরজা ও পশ্চিম  দেয়ালের মাঝের মিহরাবের মধ্যবর্তি সারিতে যে সাতটি গম্বুজ সেগুলো দেখতে  অনেকটা বাংলাদেশের চৌচালা ঘরের চালের মত। বাকি ৭০টি গম্বুজ আধা গোলাকার।

মতামত দিন