খবর-দার

পবিত্র মাহে রমজানের গুরুত্ব ও তাৎপর্য- আহলান সাহলান মাহে রমাদান

মোঃ মামুনুর রহমান ১৩ এপ্রিল,২০২১ ৮৬ বার দেখা হয়েছে ৪৩ লাইক ৭৬ কমেন্ট ৪.৮২ রেটিং ( ৩৪ )

রমজান মাস। আরবি মাসসমূহের মধ্যে সবচেয়ে বরকতময় ও মর্যাদাপূর্ণ মাস। এ মাসের গুরুত্ব ও বৈশিষ্ট্য অপরিসীম। দুনিয়ার কোনো সম্পদের সঙ্গে আল্লাহর এ অনুগ্রহের তুলনা চলে না। রমজানের আগমনে বিশ্বনবি অনেক আনন্দিত হতেন। সাহাবাদের উদ্দেশ্যে এভাবে ঘোষণা দিতেন বিশ্বনবি সাল্লাল্রাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-
أتاكم رمضان شهر مبارك
‘তোমাদের দরজায় বরকতময় মাস রমজান এসেছে।’

তারপর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম কুরআনের ঘোষণা দিয়ে এ মাসের বিশেষ ফজিলত বর্ণনা করতেন। আর তা ছিল এমন-
হে ঈমানদারগণ! তোমাদের ওপর রোজা রাখা ফরজ (বাধ্যতামূলক) করা হয়েছে। যেভাবে তোমাদের আগের লোকদের (নবি-রাসুলের উম্মতের) ওপর ফরজ করা হয়েছিল। যাতে তোমরা মুত্তাকি হতে পার।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৩)

আরবি মাসসমূহের নবম মাস হচ্ছে পবিত্র রমজান মাস। রোজা হচ্ছে ইসলামের তৃতীয় স্তম্ভ। রোজা শব্দটি ফারসি। এর আরবি পরিভাষা হচ্ছে সওম, বহুবচনে বলা হয় সিয়াম। সওম অর্থ বিরত থাকা, পরিত্যাগ করা। পরিভাষায় সওম হলো আল্লাহর সন্তুটি কামনায় সুবহে সাদিক থেকে সূর্যাস্ত পর্যন্ত নিয়তসহকারে পানাহার থেকে বিরত থাকা।

রোজা ফরজ হয় দ্বিতীয় হিজরির শাবান মাসে। এ সম্পর্কে পবিত্র কোরআনের সুরা বাকারার ১৮৩ নম্বর আয়াতে বলা হয়েছে, হে মুমিনগণ! তোমাদের প্রতি রোজা ফরজ করা হয়েছে যেমন ফরজ করা হয়েছিল তোমাদের পূর্ববর্তীদের প্রতি, যাতে তোমরা আল্লাহভীরু হতে পারো, পরহেজগার হতে পারো। এ আয়াত থেকে আমরা বুঝতে পারি, রোজার বিধান দেওয়া হয়েছে তাকওয়া অর্জনের জন্য, গুনাহ বর্জন করে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জনের মাধ্যমে জান্নাতের উপযোগী হওয়া, নিজেকে পরিশুদ্ধ করার জন্য।

রমজানের একটি বিশেষ বৈশিষ্ট্য হলো, আল্লাহ্ তাআলা এ মাসটিকে স্বীয় ওহি সহিফা ও আসমানি কিতাব নাজিল করার জন্য মনোনীত করেছেন। অধিকাংশ কিতাব এ মাসেই নাজিল হয়েছে।

হাদিসে বর্ণিত, হজরত ইব্রাহিম (আ.)–এর সহিফা রমজানের ১ তারিখে, তাওরাত রমজানের ৬ তারিখে, জাবুর রমজানের ১২ তারিখে, ইঞ্জিল রমজানের ১৮ তারিখে এবং পবিত্র কোরআন কদরের রাত্রিতে নাজিল হয়েছে। নিশ্চয়ই আমি এই কোরআনকে কদরের রাত্রিতে নাজিল করেছি। রমজান মাসের রোজা পালনকে ফরজ আখ্যায়িত করে আল্লাহ্ তাআলা সুরা বাকারা ১৮৫ নম্বর আয়াতে ঘোষণা করেন, রমজান মাস যাতে কোরআন নাজিল করা হয়েছে আর এ কোরআন মানবজাতির জন্য পথের দিশা, সৎপথের সুস্পষ্ট নিদর্শন, হক বাতিলের পার্থক্যকারী। অতএব, তোমাদের মধ্যে যে ব্যক্তি এ মাসটি পাবে সে এতে রোজা রাখবে, যদি সে অসুস্থ হয়ে পড়ে কিংবা সফরে থাকে, সে পরবর্তী সময়ে গু​েন গুনে সেই পরিমাণ দিন পূরণ করে দেবে। আল্লাহ্ তোমাদের জন্য সহজ করতে চান, তোমাদের জন্য কঠিন করতে চান না, যাতে তোমরা গণনা পূরণ করো এবং তোমাদের হিদায়াত দান করার দরুন আল্লাহর মহত্ত্ব বর্ণনার পর কৃতজ্ঞতা স্বীকার করো।

ইফতারের সময় দোয়া কবুলের সময়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ থেকে ছবিটি তুলেছেন আশরাফুল আলম
ইফতারের সময় দোয়া কবুলের সময়। বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ থেকে ছবিটি তুলেছেন আশরাফুল আলম

রোজার প্রতিদান
বুখারি শরিফে বর্ণিত হাদিসে হজরত আবু হোরায়রা (রা.) বলেন, হজরত মুহাম্মদ (স.) ইরশাদ করেন, যে ব্যক্তি ইমানের সঙ্গে সওয়াবের আশায় রমজানের রোজা রাখবে, তার অতীতের গুনাহসমূহ মাফ করে দেওয়া হবে। হজরত আবদুল্লাহ্ ইবনে ওমর (রা.) বর্ণনা করেন রাসুলে পাক (সা.) ইরশাদ করেন, সিয়াম এবং কোরআন হাশরের ময়দানে বান্দা–বান্দীর জন্য সুপারিশ করবে এবং আল্লাহ্ তাআলা তঁাদের উভয়ের সুপারিশ কবুল করবেন। হজরত আবু হোরায়রা (রা.) আরও বর্ণনা করেন রাসুলে পাক (সা.) বর্ণনা করেন, প্রত্যেক বস্তুর জাকাত রয়েছে, তেমনি শরীরেরও জাকাত আছে, আর শরীরের জাকাত হচ্ছে রোজা পালন করা। অর্থাৎ জাকাতদানে যেভাবে মালের পবিত্রতা অর্জন হয়, তেমনি রোজা পালনের মাধ্যমে শরীর পবিত্র হয়, গুনাহ মুক্ত হয়।
হজরত আবু হোরায়রা (রা.) হতে বর্ণিত রাসুলে পাক (স.) ইরশাদ করেন, মানুষের প্রত্যেক আমলের সওয়াব দশ গুণ হতে সাত শত গুণ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা হয়। হাদিসে কুদসিতে আছে, আল্লাহ্ তাআলা বলেন, ‘রোজা এ নিয়মের ব্যতিক্রম, কেননা তা বিশেষভাবে আমার জন্য আমি স্বয়ং তার প্রতিদান দেব, বান্দা তার পানাহার ও কামনা–বাসনাকে আমার সন্তুষ্টির জন্য ত্যাগ করেছে।’

রোজা রেখে সর্ব প্রকার গুনাহ বর্জনের অঙ্গীকার করতে হবে

রোজার মাসে শুরুতে আল্লাহ্ তাআলা জাহান্নামের দরজা বন্ধ করে দেন, জান্নাতের দরজা খুলে দেন এবং শয়তানকে শিকলবদ্ধ করে রাখেন। তাই শয়তানের কুমন্ত্রণা থেকে বেঁচে থাকা সহজ হয়। নেক কাজে অগ্রগামী হতে পারে। আল্লাহ্ তাআলা পবিত্র কালামের অনেক জায়গায় শয়তানকে মানুষের প্রকাশ্য শত্রু বলে আখ্যায়িত করেছেন। তিনি আরও বলেছেন, শয়তান তোমাদের শত্রু, তাকে শত্রু হিসেবেই গ্রহণ করো। সে চায় মানুষের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ সৃষ্টি করা, মদ–জুয়ায় নিমগ্ন করা, মিথ্যা বলায় উদ্বুদ্ধ করা, এককথায় খারাপ কাজে জড়িয়ে দেওয়া। তাই হাদিস শরিফে বর্ণিত হয়েছে যে, যে ব্যক্তি রোজা রেখে মিথ্যা কথা ও তৎসংক্রান্ত কাজ পরিত্যাগ করল না, তার রোজা রাখার আমার কোনো প্রয়োজন নেই। তাই শয়তানি কার্যক্রম থেকে আমাদের বেঁচে থাকতে হবে এবং আল্লাহর সাহায্য কামনা করতে হবে।

রোজাদারের জন্য জান্নাতের বিশেষ দরজা

হজরত সাহল বিন সাদ (রা.) থেকে বর্ণিত, রাসুলে পাক (সা.) ইরশাদ করেন, জান্নাতের আটটি দরজা রয়েছে। এর মধ্যে একটি দরজার নাম ‘রাইয়ান’। এ দরজা দিয়ে শুধু রোজাদারগণ প্রবেশ করবে। অন্যরাও এই দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে চাইবে। কিন্তু রোজাদার ব্যতীত অন্য কাউকে এ দরজা দিয়ে প্রবেশ করতে দেওয়া হবে না। (বুখারি ও মুসলিম)।

রোজাদারের জন্য দুটি আনন্দ

হজরত আবু হোরায়রা (রা.) বর্ণনা করেন, রাসুল পাক (সা.) ইরশাদ করেন, রোজাদারের জন্য দুটি আনন্দ রয়েছে, একটি তার ইফতারের সময়, অপরটি হলো আল্লাহ্ তাআলার দিদার বা সাক্ষাতের সময়। হাদিসে আরও উল্লেখ রয়েছে, ইফতারের সময় দোয়া কবুলের সময়। আল্লাহ্ তায়ালা বান্দার দোয়া কবুল করেন। আর এই সময়ের দোয়া হচ্ছে ‘আল্লাহুম্মা ইন্নি আসআলুকা বিরাহমাতিকাল্লাতি ওয়াসিয়াত কুল্লা শাইয়িন আন তাগফিরা লি জুনুবি।’

লাইলাতুল কদর

লাইলাতুল কদর হচ্ছে একমনে একটি রাত যে রাতে জেগে ইবাদত–বন্দেগি করলে এক হাজার মাসের ইবাদতের চেয়েও উত্তম বলে পবিত্র কোরআনে উল্লেখ রয়েছে। এক হাজার মাসের হিসাব করলে কদরের এক রাতের ইবাদত ৮৬ বছর ৪ মাসের সমান। কিন্তু আল্লাহ্ তাআলা তার চেয়েও বেশি বা উত্তম বলেছেন। যে ব্যক্তি কদরের রাতে সওয়ারের আশায় ইবাদত করবে, তার অতীতের গুনাহসমূহ মাফ করে দেওয়া হবে।

উম্মুল মুমিনিন হজরত আ​েয়শা সিদ্দিকা (রা.) বলেন, ইয়া রাসুলুল্লাহ (সা.) আমি যদি কদরের রাত্রি পাই, তাহলে আমি কী দোয়া পড়ব? ‘আল্লাহুম্মা ইন্নাকা আফুওউন তুহিব্বুল আফওয়া ফাফু আন্নি’ এই দোয়া পড়বে। হাদিসে আছে, তোমরা রমজানের শেষ দশকের বিজোড় রাত্রিতে (২১, ২৩, ২৫, ২৭ ও ২৯ তারিখ) শবে কদর তালাশ করবে।

তারাবি নামাজ

এশার সালাতের (ফরজ ও সুন্নতের) পর বিতরের আগে দুই রাকাত করে মোট ২০ রাকাত নামাজ আদায় করা সুন্নত। সম্ভব হলে খতম তারাবি আদায় করবে।

ইতিকাফ

আল্লাহ্ তাঅালা ইরশাদ করেন, ‘ওয়া আনতুম আকিফুনা ফিল মাসজিদ’ তোমরা মসজিদে ইতিকাফ করো। ইতিকাফ শব্দের অর্থ নিজেকে আবদ্ধ রাখা। শরিয়তের পরিভাষায় ইতিকাফ হলো, মহান আল্লাহর সন্তুষ্টি ও নৈকট্য লাভের আশায় শর্ত সাপেক্ষে নিয়তসহকারে পুরুষেরা মসজিদে ও নারীরা ঘরের নির্দিষ্ট স্থানে অবস্থান করা। রমজানের শেষ দশক (২০ রমজান থেকে সূর্যাস্তের পূর্ব থেকে শাওয়াল মাসের চঁাদ দেখা পর্যন্ত) ইতিকাফ করা সুন্নতে মুয়াক্কাদায়ে কিফায়া। বিনা প্রয়োজনে অর্থাৎ গোসল, খাবার, প্রস্রাব–পায়খানা ব্যতীত অন্য কোনো অজুহাতে ইতিকাফের স্থান ত্যাগ করতে পারবে না। ইতিকাফ অবস্থায় কোরআন তিলাওয়াত, জিকির, নফল নামাজ ইত্যাদিতে মশগুল থাকবে।


রমজান মাসের ফজিলত ও বৈশিষ্ট্যের বর্ণনা
১. ফরজ রোজা পালন
২. কুরআন নাজিল
৩. জান্নাতের দরজা খুলে দেওয়ার মাস
৪. জাহান্নামের দরজা বন্ধ
৫. শয়তানকে শৃঙ্খাবদ্ধ করা
৬. লাইলাতুল কদর পাওয়া
৭. দোয়া কবুল হওয়া
৮. জাহান্নাম থেকে মুক্তি
৯. ক্ষমা পাওয়া
১০. সৎ কাজের প্রতিদান বহুগুণে বেড়ে যাওয়া
১১. হজের সাওয়াব পাওয়া
১২. রোজাদারের বিশেষ সম্মান

> রোজা পালন ফরজ
রমজান মাসের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো এ মাসজুড়ে রোজা পালন করা ফরজ। কুরআনুল কারিমের রোজা পালনের নির্দেশ এসেছে এভাবে-
فَمَن شَهِدَ مِنكُمُ الشَّهْرَ فَلْيَصُمْهُ
‘কাজেই তোমাদের মধ্যে যে লোক এ মাসটি পাবে, সে এ মাসের রোযা রাখবে।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৫)

> কুরআন নাজিলের মাস
রহমতের বার্তাবাহী মাস রমজানের অরেকটি বৈশিষ্ট্য হলো- এটি কুরআন নাজিলের মাস। রমজানের এক সম্মানিত রাতে (লাইলাতুল কদরে) আল্লাহ তাআলা উম্মতে মুহাম্মাদির জীবন পরিচালনার গাইড হিসেবে মহাগ্রন্থ কুরআনুল কারিম নাজিল করেছেন। একাধিক আয়াতে তা এভাবে বর্ণিত হয়েছে-
- شَهْرُ رَمَضَانَ الَّذِيَ أُنزِلَ فِيهِ الْقُرْآنُ هُدًى لِّلنَّاسِ وَبَيِّنَاتٍ مِّنَ الْهُدَى وَالْفُرْقَانِ
রমজান মাস-ই হল সেই মাস; যাতে নাজিল করা হয়েছে কুরআন। যা মানুষের জন্য হেদায়েত এবং সত্যপথ যাত্রীদের জন্য সুষ্পষ্ট পথ নির্দেশ আর ন্যায় ও অন্যায়ের মাঝে পার্থক্য বিধানকারী।’ (সুরা বাকারা : আয়াত ১৮৫)

- وَالْكِتَابِ الْمُبِينِ - إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةٍ مُّبَارَكَةٍ إِنَّا كُنَّا مُنذِرِينَ
শপথ সুস্পষ্ট (কুরআনের) কিতাবের। আমি একে নাজিল করেছি এক বরকতময় রাতে। নিশ্চয়ই আমি সতর্ককারী।’ (সুরা দুখান : আয়াত ২-৩)

- إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةِ الْقَدْرِ
‘আমি একে (কুরআনকে) নাজিল করেছি শবে-কদরে।’ (সুরা কদর : আয়াত ১)

> জান্নাতের দরজা খুলে দেয়ার মাস
রমজান মাসে জান্নাতের দরজা খুলে দেয়া হয়। রমজানের সম্মানে জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ করে দেয়া হয় এবং এ মাসর বরকত লাভে শয়তানকে শৃঙ্খলাবদ্ধ করে রাখা হয়। হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, যখন রমজান আসে তখন জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেওয়া হয় আর জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয় এবং শয়তানদের আবদ্ধ করে রাখা হয়।’ (বুখারি, মুসলিম)
এ বৈশিষ্ট্যের অন্যতম ফলাফল হলো- রমজান মাসে মানুষ ধর্ম-কর্ম ও নেক আমলের দিকে বেশি তৎপর হয় এবং নতুন-পুরাতন সব মানুষকেই মসজিদমুখী হতে দেখা যায়।

> লাইলাতুল কদরের মাস
এ মাসের অন্যতম বৈশিষ্ট্য হলো ‘লাইলাতুল কদর’। রাতটি হাজার মাসের (৮৩ বছর ৪ মাস) ইবাদতের চেয়েও উত্তম। এ রাতে কুরআনুল কারিম নাজিল করা হয়েছে। রমজানের শেষ দশকের বেজোড় যে কোনো একটি রাতই ‘লাইলাতুল কদর’। আল্লাহ তাআলা বলেন-
- وَالْكِتَابِ الْمُبِينِ - إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةٍ مُّبَارَكَةٍ إِنَّا كُنَّا مُنذِرِينَ
শপথ সুস্পষ্ট (কুরআনের) কিতাবের। আমি একে নাজিল করেছি এক বরকতময় রাতে। নিশ্চয়ই আমি সতর্ককারী।’ (সুরা দুখান : আয়াত ২-৩)
- إِنَّا أَنزَلْنَاهُ فِي لَيْلَةِ الْقَدْرِ- وَمَا أَدْرَاكَ مَا لَيْلَةُ الْقَدْرِ - لَيْلَةُ الْقَدْرِ خَيْرٌ مِّنْ أَلْفِ شَهْرٍ - تَنَزَّلُ الْمَلَائِكَةُ وَالرُّوحُ فِيهَا بِإِذْنِ رَبِّهِم مِّن كُلِّ أَمْرٍ - سَلَامٌ هِيَ حَتَّى مَطْلَعِ الْفَجْرِ
‘আমি একে (কুরআনকে) নাজিল করেছি লাইলাতুল কদরে। আপনি কি জানেন কি লাইলাতুল কদর কী? লাইলাতুল কদর হল এক হাজার মাস অপেক্ষা শ্রেষ্ঠ। এতে প্রত্যেক কাজের জন্যে ফেরেশতাগণ ও রূহ অবতীর্ণ হয় তাদের পালনকর্তার নির্দেশক্রমে। এটা নিরাপত্তা, যা ফজরের উদয় পর্যন্ত অব্যাহত থাকে। সুরা কদর : আয়াত ১-৫)

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, তোমাদের কাছে রমজান মাস আগমন করেছে। … এ মাসে এমন একটি রাত রয়েছে যা হাজার মাসের চেয়ে উত্তম। যে ব্যক্তি এর কল্যাণ থেকে বঞ্চিত হলো সে মূলত সব কল্যাণ থেকেই বঞ্চিত হল।’ (নাসাঈ)

> দোয়া কবুল হওয়ার মাস
রমজান মাসের দোয়া আল্লাহ তাআলা কবুল করে নেন বলে জানিয়েছেন স্বয়ং বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। হাদিসে এসেছে-
‘রমজান মাসে প্রত্যেক মুসলমান আল্লাহর সমীপে দোয়া করে। আর তা কবুল হয়ে যায়।’ (মুসনাদে আহামদ)

> জাহান্নাম থেকে মুক্তির মাস
এ মাসকে তিন দশকে ভাগ করা হয়েছে। এর মধ্যে শেষ দশক হলো জাহান্নাম থেকে মুক্তির মাস। হাদিসে এসেছে-
রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-
‘আল্লাহ তাআলা (রমজান মাসের) প্রতি রাত ও দিনে অনেক মানুষকে জাহান্নাম থেকে মুক্তির ঘোষণা করেন এবং প্রতিটি রাত ও দিনের বেলায় প্রত্যেক মুসলমানের দোয়া ‘মোনাজাত’ কবুল হয়ে থাকে।’ (মুসনাদে আহামদ)

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহুর বর্ণনায় রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘যখন রমজানের প্রথম রাত আগমন করে, তখন শয়তান এবং অবাধ্য জিনদের আবদ্ধ করা হয়। আর জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ করে দেওয়া হয়। এরপর একটি দরজাও খোলা হয় না। (এ মাসের) প্রত্যেক রাতে একজন ঘোষণাকারী এ বলে ডাকতে থাকে যে, হে কল্যাণের অনুসন্ধানকারী! তুমি আরও অগ্রসরহও। হে অসৎ কাজের পথিক! তোমরা অন্যায় পথে চলা বন্ধ কর। (তুমি কি জানো?) এ মাসের প্রতি রাতে আল্লাহ তাআলা কত লোককে জাহান্নাম থেকে মুক্তি দিয়ে থাকেন?’ (তিরমিজি)

> ক্ষমা পাওয়ার মাস
ক্ষমার মাস রমজান। রমজান পাওয়ার পরও যারা নিজেকে পাপ থেকে মুক্ত করতে পারল না; তাদের ধিক্কার জানিয়েছেন বিশ্বনবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম (৩ ব্যক্তির ব্যাপারে) বলেছেন-
- ‘ওই ব্যক্তির নাক ধূলায় ধুসরিত হোক, যার সামনে আমার আলোচনা হলো; কিন্তু সে আমার প্রতি দরূপ পড়লো না।
- ওই ব্যক্তির নাম ধূলায় ধুসরিত হোক, যার কাছে রমজান মাস এসে চলে গেল; অথচ তার পাপগুলো ক্ষমা করিয়ে নিতে পারল না।
- ওই ব্যক্তির নাক ধূলায় ধুসরিত হোক, যে তার বৃদ্ধ বাবা-মাকে পেল; কিন্তু তাদের মধ্যমে জান্নাত উপার্জন করতে পারল না।’ (তিরমিজি)

> সৎ কাজের প্রতিদান বেড়ে যাওয়ার মাস
রমজান মাসে ভালো কাজের প্রতিদান বহুগুণে বাড়িয়ে দেওয়া হয়। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-
‘যে ব্যক্তি রমজান মাসে কোনো একটি নফল ইবাদত করল, সে যেন অন্য মাসের একটি ফরজ আদায় করল। আর রমজানে যে ব্যক্তি একটি ফরজ আদায় করল, সে যেন অন্য মাসের ৭০টি ফরজ আদায় করল।’ (ইবনে খুজায়মা)

> হজের সাওয়াব পাওয়ার মাস
রমজান মাসে ওমরাহজ পালনে রয়েছে বিশেষ ফজিলত ও মর্যাদা। এ মাসে একটি ওমরাহ করলে পাওয়া যাবে হজের সাওয়াব। আর তা রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের সঙ্গে আদায় করার মর্যাদা রাখে। হাদিসে এসেছে-
- হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, ‘যখন রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম হজ থেকে ফিরে আসলেন তখন উম্মে সিনান নামক এক আনসারি নারীকে জিজ্ঞাসা করলেন- কে তোমাকে হজ করা থেকে নিষেধ করল?
উত্তরে ওই নারী সাহাবি বলল- উমুকে পিতা (তার স্বামী)। তার দুই জন পানি প্রদানকারী রয়েছে, তাদের একজন হজ পালন করবে, অপরজন আমাদের জমিতে সেচ দেবে। এরপর রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বললেন-
‘রমজান মাসের ওমরাহ আমার সঙ্গে হজ আদায় করার সমতুল্য।’ (বুখারি)

- হজরতিইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম একজন আনসারি নারীকে বললেন, ‘যখন রমজান মাস আসে তখন তুমি ওমরাহ কর। কেননা রমজান মাসের ওমরাহ হজের মর্যাদা রাখে।’ (নাসাঈ)

- রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে এক নারী এসে জিজ্ঞাসা করল- কোন ইবাদত আপন সঙ্গী হয়ে হজ করার সমতুল্য সাওয়াব পাওয়া যায়? উত্তরে তিনি বললেন, ‘রমজান মাসে ওমরাহ করা।’ (আবু দাউদ)

> রোজাদারের বিশেষ সম্মানের মাস
রমজান মাসের রোজা পালনকারীদের জন্য রয়েছে বিশেষ সম্মান। জান্নাতের একটি দরজা শুধু রমজানের রোজা পালনকারীদের জন্যই নির্ধারিত। এ দরজা দিয়ে অন্য কেউ প্রবেশ করতে পারবে না। হাদিসে এসেছে-
হজরত খালেদ ইবনে মাখলাদ রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘জান্নাতের একটি দরজা রয়েছে ‘রাইয়ান’। কেয়ামতের দিন শুধু রোজাদারগণ এ দরজা দিয়ে জান্নাতে প্রবেশ করবে। তারা ব্যতিত অন্য কেউ এ দরজা দিয়ে করার সুযোগ পাবে না। ঘোষণা করা হবে-
রোজাদারগণ কোথায়? তখন তারা দাঁড়াবে। তারা ব্যতিত এ দরজা দিয়ে অন্য কেউ প্রবেশ করবে না। তারা জান্নাতে প্রবেশের পর সে দরজা বন্ধ করে দেয়া হবে। আর কেউ তাতে প্রবেশের সুযোগ পাবে না।’ (বুখারি)

এ ছাড়াও রমজান মাসের অনেক ফজিলত ও মর্যাদা রয়েছে। যা মেনে চলা প্রত্যেম মুমিন মুসলমানের একান্ত করণীয়।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে রমজানের ফজিলত ও বিশেষ বেশিষ্ট্যগুলো যথাযথভাবে পালনের তাওফিক দান করুন। রমজানের রহমত বরকত মাগফেরাত ও নাজাত লাভে তাওফিক দান করুন। আমিন।






মতামত দিন
সাম্প্রতিক মন্তব্য
উজ্বল কুমার মজুমদার
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৫৩ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন এবং নিরাপদে থাকবেন। আবারও ধন্যবাদ।


বিনয় কুমার বিশ্বাস
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:৫৮ পূর্বাহ্ণ

মুজিব জন্মশতবর্ষের শুভেচ্ছা রইল । পূর্ণ রেটিং ও লাইকসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন। আমার কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত , রেটিং ও লাইক প্রদান করার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।ঘরে থাকুন, সুস্থ থাকুন। নিরাপদে থাকুন। ধন্যবাদ । মন্তব্য করুন।


হারুন অর রশিদ
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:০৬ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণরেটিং সহ শুভকামনা রইলো স্যার


বিপুল সরকার
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৭:৫২ পূর্বাহ্ণ

স্যার/ম্যাডাম , নমস্কার / আদাব নিবেন।আপনি শ্রেণি উপযোগী ও মান সম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধি করেছেন,আপনাকে অভিনন্দন।লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ আপনার জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত এ পাক্ষিকের ১৪৪ তম (নবম-দশম শ্রেণি) পরিমিতি (বৃত্ত) কন্টেন্ট দেখে আপনার গঠনমূলক মূল্যবান মতামত প্রত্যাশা করছি।(bipulsarkar1977)


মোঃ সাইফুর রহমান
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৪২ পূর্বাহ্ণ

স্যার অনেক সুন্দর উপস্থাপন। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল। বাতায়নে আমার আপলোডকৃত " মহাকাশ " শিরোনামমে ৬২তম কনটেন্ট দেখে লাইক ও রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ রইল। আমার বাতায়ন আইডিঃ saifurrajoir@gmail.com এবং কনটেন্ট লিংকঃ http://teachers.gov.bd/content/details/921784


মোঃ মামুনুর রহমান
১৭ এপ্রিল, ২০২১ ০৬:০৪ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


শাহানাজ বেগম
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪৪ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


অনুকুল চন্দ্র সরকার
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৩৫ অপরাহ্ণ

অত্যন্ত সুন্দর লেখুনির জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ ও শুভকামনা রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোহাম্মদ সিদ্দিকুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৩৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


সেলিম মাহমুদ
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৫২ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মুহাঃ রুহুল আমিন
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:২৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। মোবা নং-০১৯১৮০১৩৫০৫।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মুহাঃ রুহুল আমিন
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:২৩ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। মোবা নং-০১৯১৮০১৩৫০৫।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


বিদ্যুৎ চন্দ্র তালুকদার
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৬:২৭ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট তৈরি করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


জাহিদুল ইসলাম
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৫৭ অপরাহ্ণ

পবিত্র মাহে রমজান ও বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল। বাতায়নের সন্মানিত শ্রদ্ধেয় এডমিন, প্যাডাগোজি, রেটার মহোদয়, সকল সেরা কনটেন্ট নির্মাতা,সকল সেরা উদ্ভাবক, সকল সেরা নেতৃত্ব, সকল সেরা অনলাইন পারফর্মার ও সকল জেলা অ্যাম্বাসেডর, সকল সক্রিয় শিক্ষকবৃন্দ আমার আপলোডকৃত ২৮তম কনটেন্ট দেখে লাইক ও পূর্ণ রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি https://www.teachers.gov.bd/content/details/921382। ধন্যবাদ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোহাম্মদ বারী আলম
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৪৭ অপরাহ্ণ

ধন্যবাদ স্যার।লাইক ও পূর্ণরেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা নিরন্তর


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


জাহিদুল ইসলাম
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৩:৩৯ অপরাহ্ণ

পবিত্র মাহে রমজান ও বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রইল। বাতায়নের সন্মানিত শ্রদ্ধেয় এডমিন, প্যাডাগোজি, রেটার মহোদয়, সকল সেরা কনটেন্ট নির্মাতা,সকল সেরা উদ্ভাবক, সকল সেরা নেতৃত্ব, সকল সেরা অনলাইন পারফর্মার ও সকল জেলা অ্যাম্বাসেডর, সকল সক্রিয় শিক্ষকবৃন্দ আমার আপলোডকৃত ২৮তম কনটেন্ট দেখে লাইক ও পূর্ণ রেটিং দেওয়ার জন্য বিনীত অনুরোধ করছি https://www.teachers.gov.bd/content/details/921382। ধন্যবাদ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৩৪ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


নাহিদাল আরজিন
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০১:২৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও রেটিংসহ শুভ কামনা রইল।আমার কন্টেন্ট দেখার আমন্ত্রণ রইল


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:৩৪ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


শাহনাজ ফেরদৌসী জুই
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা ।আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত প্রদানের জন্য অনুরোধ রইলো ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


শাহনাজ পারভীন
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৩৬ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা।সেই সাথে আমার কন্টেন্ট দেখার অনুরোধ রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মুজিবুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৩৩ অপরাহ্ণ

অনেক সুন্দর উপস্থাপন। লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভকামনা রল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


বিপুল সরকার
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:২৯ অপরাহ্ণ

স্যার/ম্যাডাম , নমস্কার / আদাব নিবেন।আপনি শ্রেণি উপযোগী ও মান সম্মত কনটেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধি করেছেন,আপনাকে অভিনন্দন।লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ আপনার জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত এ পাক্ষিকের ১৪৪ তম (নবম-দশম শ্রেণি) পরিমিতি (বৃত্ত) কন্টেন্ট দেখে আপনার গঠনমূলক মূল্যবান মতামত প্রত্যাশা করছি।(bipulsarkar1977)


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


বিপ্লব বাস্কি
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:২৯ অপরাহ্ণ

সুন্দর উপস্থাপনা। আন্তরিক অভিনন্দন।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মাহাবুর রশিদ
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:২৩ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ আপনাকে শুভকামনা ও অভিনন্দন জানাই।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


অনুকুল চন্দ্র সরকার
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪০ পূর্বাহ্ণ

অত্যন্ত সুন্দর লেখনী লাইক কমেন্ট ও রেটিং সহ শুভকামনা রইল। পাশাপাশি আমার কন্টেন্ট দেখে একটু সহযোগিতা করার জন্য বিনীত প্রার্থনা করছি স্যার।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোছাঃ লাকী আখতার পারভীন
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১০:০৯ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও রেটিং সহ ধন্যবাদ। শুভ কামনা রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ আব্দুল আহাদ
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:১৮ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিং সহ শুভ কামনা। আমার বাতায়ন বাড়ি ঘুরে আসার আমন্ত্রণ রইল


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


দিব্যেন্দু কুমার পাল
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:১৪ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ শুভকামনা ও অভিনন্দন । আমার কন্টেন্ট দেখে রেটিং ও মন্তব্য করার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


রাহিমা আক্তার
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:২৫ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মঞ্জু রানী পাল
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ০১:৪২ পূর্বাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণরেটিং সহ আপনার জন্য শুভকামনা নিরন্তর। আমার আপলোডকৃত কন্টেন্ট দেখে লাইক, রেটিং ও পরামর্শ প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


কল্লোল চক্রবর্ত্তী
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৬ পূর্বাহ্ণ

শুভ নববর্ষ ।গঠনমূলক কাজ সব সময়ই প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য।স্যার আপনার শ্রেণি উপযোগী ও মানসস্মত কনটেন্ট দেখে আমি খুবই আশাবাদি যে,শিক্ষার্থীদের অবশ্যই উপকারে আসবে। আমার পক্ষ থেকে লাইক ও পূর্ণরেটিংসহ শুভ কামনা রইল। আমার শ্রমকে আরোও গতিশীল করতে আপনার লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ পরামর্শ দেওয়ার জন্য বিনীত ভাবে আশা করছি ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৬ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মানিক মিয়া
১৫ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:০৪ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট তৈরি করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকে আপলোডকৃত ২০তম কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি https://www.teachers.gov.bd/content/details/919902


মোঃ মামুনুর রহমান
১৫ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৫৫ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মামুনুর রশীদ
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৩০ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ কাউছার হোসেন
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ

আপনাকে ধন্যবাদ। লাইক রেটিং সহ আপনার জন্য রইলো শুভকামনা। আমার কন্টেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ রইলো।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১২:৩০ অপরাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন ,নেত্রকোনা ।
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ

অনেক সুন্দর উপস্থাপন হয়েছে। আপনি মানসম্মত ও শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করেছেন। আপনাকে অভিনন্দন। লাইক, কমেন্ট ও পূর্ণ রেটিং সাথে অসংখ্য শুভ কামনা রইল। আপনার দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করছি। সেই সাথে আমার ৪৭ তম কন্টেন্ট "বিজ্ঞাপন" দেখে সুচিন্তিত মতা


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন ,নেত্রকোনা ।
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৪৬ পূর্বাহ্ণ

অনেক সুন্দর উপস্থাপন হয়েছে। আপনি মানসম্মত ও শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট আপলোড করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করেছেন। আপনাকে অভিনন্দন। লাইক, কমেন্ট ও পূর্ণ রেটিং সাথে অসংখ্য শুভ কামনা রইল। আপনার দীর্ঘায়ু ও সাফল্য কামনা করছি। সেই সাথে আমার ৪৭ তম কন্টেন্ট "বিজ্ঞাপন" দেখে সুচিন্তিত মতা


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ১০:২৬ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোসাঃফরিদা ইয়াসমিন
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১১:৪৩ অপরাহ্ণ

আসাধারণ উপস্থাপন। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।আমার ছবিতে ক্লিক করে আমার আপলোডকৃত "মিশরীয় সভ্যতা " কনটেন্টটি দেখে আপনার মূল্যবান মতামত , লাইক ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:২০ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ শহিদুল ইসলাম
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১১:১১ অপরাহ্ণ

খুবসুন্দর উপস্থাপন। লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো।আমার ছবিতে ক্লিক করে আমার আপলোডকৃত ১১/০৪/২০২১ তারিখের কনটেন্টটি দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:২০ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মিজানুর রহমান
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ১০:৪০ অপরাহ্ণ

পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


ইসহাক মোহাম্মদ আলী
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৯:৩২ অপরাহ্ণ

মানসম্মত কনটেন্ট তৈরি করে বাতায়ন কে সমৃদ্ধ করার জন্য লাইক পূর্ণ রেটিং সহ আপনাকে ধন্যবাদ। আমার ৩৮তম কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত দেয়ার অনুরোধ রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


সন্তোষ কুমার বর্মা
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৮:৫০ অপরাহ্ণ

শ্রেণি উপযোগী কন্টেন্ট তৈরি করে বাতায়নকে সমৃদ্ধ করার জন্য লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভ কামনা রইলো। আমার এ পাক্ষিকের আপলোডকৃত কনটেন্টটি দেখে লাইক,গঠন মূলক মতামত ও রেটিং প্রদানের জন্য বিনীত অনুরোধ করছি। ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, নিরাপদে থাকুন। ধন্যবাদ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ আবুল কালাম
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৭:৪৯ অপরাহ্ণ

লাইক ও পূর্ণ রেটিংসহ আপনার জন্য শুভকামনা রইলো। আমার আপলোডকৃত কনটেন্ট দেখে আপনার মূল্যবান মতামত ও পরামর্শ দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি ।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ


মোঃ মামুনুর রহমান
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৭:৪২ অপরাহ্ণ

লাইক, শেয়ার ও পূর্ণ রেটিং প্রদানের জন্য বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।


মোছাঃ শিউলী বেগম
১৩ এপ্রিল, ২০২১ ০৬:২৫ অপরাহ্ণ

লাইক রেটিং সহ শুভকামনা , চলতি পাক্ষিকে আমার কনটেন্ট দেখার আমন্ত্রণ রইল।


মোঃ মামুনুর রহমান
১৪ এপ্রিল, ২০২১ ০৫:১৯ পূর্বাহ্ণ

অসংখ্য ধন্যবাদ